Alexa
ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৪, ২৭ জুন ২০১৭

bangla news
কসাই টিক্কার নির্দেশ, ‘আমি মাটি চাই, মানুষ নয়’

কসাই টিক্কার নির্দেশ, ‘আমি মাটি চাই, মানুষ নয়’

কসাই টিক্কা নামেই তিনি পরিচিত। তার স্বদেশি পাকিস্তানিরাই তাকে এ নামে ডাকতো। ১৯৭০ সালে বেলুচিস্তানের বিদ্রোহ দমনে জেনারেল টিক্কা খান নিষ্ঠুর হত্যাযজ্ঞ চালান। সেজন্য পশ্চিম পাকিস্তানিরাই তাকে বেলুচিস্তানের কসাই নামে কুখ্যাতি দেয়।


২০১৭-০৩-২৫ ২:৩৬:৪৯ পিএম
২৫ মার্চের গণহত্যার সাক্ষ্য দেন নিয়াজী

২৫ মার্চের গণহত্যার সাক্ষ্য দেন নিয়াজী

একাত্তরে বাঙালি নিধনযজ্ঞের মাস্টারমাইন্ড ছিলেন জুলিফকার আলী ভুট্টো-জেনারেল ইয়াহিয়া, আর তাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য ছিলেন টিক্কা খান-রাও ফরমান আলী। এই চারজনই ছিলেন ২৫ মার্চ গণহত্যার ধিকৃত খলনায়ক। এ সারিতে পরে যোগ দেন জেনারেল আমির আব্দুল্লাহ খান নিয়াজী।


২০১৭-০৩-২৫ ১২:৪৫:২৪ পিএম
লিখে নয়, আদায় করে নিন অধিকার

লিখে নয়, আদায় করে নিন অধিকার

আমার কলেজের এক বান্ধুবীকে দেখতাম যে তার পেন্সিল বক্সে সবসময় দুই-একটা সুঁই রাখতো। জিজ্ঞেস করলে কখনও উত্তর না দিয়ে হেসে চলে যেত। মনে মনে কৌতূহল বাড়তেই লাগল। কেন বক্সে সুঁই রাখে।


২০১৭-০৩-২৪ ৫:৩৩:২০ পিএম
বাংলাদেশ প্রশ্নে মার্কিন সরকার ও জনগণের বিপরীত অবস্থান

বাংলাদেশ প্রশ্নে মার্কিন সরকার ও জনগণের বিপরীত অবস্থান

ইয়াহিয়া খান বাঙালির ওপর সশস্ত্র যুদ্ধ চাপিয়ে দিলে বাঙালিও যার যা আছে তাই নিয়ে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। সামরিক ও আধা-সামরিক বাহিনী ও পুলিশ সদস্যরা তাদের ইউনিট, অস্ত্রশস্ত্র, গোলাবারুদ, সাজ-সরঞ্জাম ও পরিবহন নিয়ে মুক্তিবাহিনীতে যোগ দেয়। এ যুদ্ধ ধীরে ধীরে শহর থেকে গ্রামে ও পুরো দেশে ছড়িয়ে পড়ে। যুদ্ধের এক পর্যায়ে আমাদের সঙ্গে যোগ দেয় ভারতীয় মিত্র-সেনারা। তারা মুক্তিযুদ্ধে আমাদের সহযোগী শক্তি হিসেবে যোগ দেয়।


২০১৭-০৩-২৪ ১:২৩:০৬ পিএম
অনলাইন জীবন

সাদাসিধে কথা

অনলাইন জীবন

১.
একটি দৃশ্য কল্পনা করা যাক। আপনি একজন বাবা কিংবা মা, আপনার ছেলে-মেয়েরা বড় হয়নি, তারা স্কুল-কলেজে পড়ে। একদিন আপনি বাসায় এসেছেন। এসে দেখলেন, আপনার ছেলে বা মেয়েটি টেবিলে পা তুলে গভীর মনোযোগে সিগারেট টানছে।


২০১৭-০৩-২৪ ১:৩২:৪০ এএম
২৫শে মার্চ, ‘গণহত্যা দিবস’: ইতিহাসের দায় মুক্তি

২৫শে মার্চ, ‘গণহত্যা দিবস’: ইতিহাসের দায় মুক্তি

মুক্তিযুদ্ধ আমাদের অস্তিত্ব। এই একটি শব্দে জাতি খুঁজে পায় তার শেকড়ের সন্ধান। বাংলাদেশের ইতিহাস স্মরণ করতে গেলে হাজার বছরের স্বাধীনতার সংগ্রামের বিভিন্ন খণ্ডিত ইতিহাস আমাদের কাছে স্মরণযোগ্য। এই সব কিছু ছাপিয়ে ’৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধ মূর্ত করেছে আমাদের প্রকৃত স্বাধীনতা। আর এই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস গড়ে উঠেছে আমাদের ভাষার অধিকার ও স্বাধীন স্বায়ত্বশাসনের আন্দোলন থেকে।


২০১৭-০৩-২৩ ১০:১১:৫৩ পিএম
তার পরিবার কি স্বাধীনতা পুরস্কার গ্রহণ করবে?

তার পরিবার কি স্বাধীনতা পুরস্কার গ্রহণ করবে?

‘শহীদ ফয়জুর রহমান আহমেদ’ নামে একজন এ বছর স্বাধীনতা পুরস্কার পেয়েছেন। উনি কি সেই মহান ব্যক্তি, যিনি বাংলাদেশের ত্রিরত্ন হ‍ুমায়ূন আহমেদ, মুহম্মাদ জাফর ইকবাল এবং আহসান হাবীব এর পিতা? যদি তাই হয়, তাহলে বলবো-ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস! এই দেশে তারই হত্যাকারীদের দোসর শর্ষিনার পীর কুখ্যাত রাজাকার মওলানা আবু জাফর মোহাম্মদ সালেহকেও স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছিল।


২০১৭-০৩-২৩ ৪:৫৭:০৫ পিএম
‘স্বাধীন বাংলাদেশ’ আগেই বুঝে যায় যুক্তরাষ্ট্র-চীন

‘স্বাধীন বাংলাদেশ’ আগেই বুঝে যায় যুক্তরাষ্ট্র-চীন

মুক্তিযুদ্ধের এক পর্যায়ে সম্ভাব্য চীনা আক্রমণ নিয়ে কথাবার্তা শোনা যায়। কিন্তু এ রকম গুজবের কোনো ভিত্তি ছিল না। কারণ, তিব্বতে আসলে সেসময় কোনো ধরনের চীনা সমাগম লক্ষ্য করা যায়নি। মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারতে ইস্টার্ন কমান্ডের ধারণা ছিল চীনাদের অবস্থান ও বিন্যাস তাৎক্ষণিক আক্রমণ রচনার উপযোগী নয়। কিন্তু তারপরও মিত্রবাহিনীর আশঙ্কা ছিল, চীন যুদ্ধে সরাসরি অংশ নেবে। এমনকি ভারতের সেনাপ্রধানেরও সে ধারণা ছিল। আসলে এটি ছিল একটি ‘সোভিয়েত-ধারণা’, যা জেনারেল মানেক শ’কেও প্রভাবিত করে।


২০১৭-০৩-২৩ ১২:৫৬:০০ পিএম
নিক্সন-কিসিঞ্জারের ‘ড্রেস রিহার্সেল’

নিক্সন-কিসিঞ্জারের ‘ড্রেস রিহার্সেল’

১৯৭১ সালের ডিসেম্বরের প্রথম থেকেই পাকিস্তানি হানাদারদের আত্মসমর্পণ নিয়ে আলোচনা হতে থাকে। মিত্রবাহিনী ও পাকিস্তানি বাহিনীর মাঝে এ বিষয়ে যোগাযোগ হতে থাকে। সেসময় ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের কনসাল জেনারেল ছিলেন আর্চার ব্লাড। পাকিস্তানিদের অবস্থা দেখে তিনি বলেন, “সৈন্যদের ‘দড়ির ফাঁস ক্রমেই সংকুচিত হচ্ছে’ বলে মনে হচ্ছে।”


২০১৭-০৩-২২ ১২:৪২:০৬ পিএম
মুক্তিযুদ্ধে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

মুক্তিযুদ্ধে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান উচ্চশিক্ষা কেন্দ্র, দেশের তৃতীয় এবং ক্যাম্পাস আয়তনের দিক থেকে সর্ববৃহৎ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় হলো চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। মুক্তিযুদ্ধের মাত্র ৫ বছর আগে ১৯৬৬ সালে যাত্রা শুরু করলেও স্বাধীনতার সংগ্রাম, মুক্তিযুদ্ধ ও দেশের বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবদান পর্বততুল্য।


২০১৭-০৩-২১ ৯:২১:১৬ পিএম
ইন্দিরা গান্ধীকে সাফল্যের নিশ্চয়তা জেনারেল মানেক শ’র

ইন্দিরা গান্ধীকে সাফল্যের নিশ্চয়তা জেনারেল মানেক শ’র

মুক্তিযুদ্ধে ভারত বাংলাদেশকে কূটনৈতিক সহায়তা দিয়েছিল। এ কূটনৈতিক সহায়তা করতে গিয়ে ভারত কয়েকটি বিষয় বিবেচনা করে। তার মধ্যে অন্যতম হলো, বাংলাদেশ ইস্যুকে আন্তর্জাতিকীকরণ। কারণ, বিষয়টি বিশ্বের নজরে না আনলে বিশ্ববাসী বিষয়টির গুরুত্ব অনুধাবন করতে পারবে না। সেই সাথে ভারতের কূটনৈতিক সহায়তার বিষয়টিও একটি ন্যায্যতা পাবে না।


২০১৭-০৩-২১ ১২:৪১:১০ পিএম
নিক্সনের কাছে ইয়াহিয়ার নালিশ

নিক্সনের কাছে ইয়াহিয়ার নালিশ

বাংলাদেশ প্রসঙ্গে এ অঞ্চলে পরাশক্তিগুলো তাদের নিজ নিজ স্বার্থবলয়ের মধ্যে ঘুরপাক খেতে থাকে। ফলে একাত্তরে এখানে সংকট মোকাবেলায় কোনো কার্যকর উদ্যোগ লক্ষ্য করা যায়নি। ইয়াহিয়া খান ক্ষমতা হস্তান্তর না করে জাতীয় পরিষদের অধিবেশন অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করে এ সংকটের সূচনা করেন। যদিও পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন চলছিল দুই যুগ ধরেই।


২০১৭-০৩-২০ ১২:৪০:৫০ পিএম
কেবল একটি জয়ই নয়, অনেক কিছু...

কেবল একটি জয়ই নয়, অনেক কিছু...

দর্শক সারি থেকে: সবাই ধরতে পেরেছে কি না জানি না। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কিন্তু একটি বেশ ব্যতিক্রম মুন্সিয়ানা আছে। এই যেমন বিজয়ের মাস এলে এরা বাঙালিকে বিজয় উপহার দেয়, স্বাধীনতার মাসে জয় ছিনিয়ে এনে জাতিকে কাঁদতে কাঁদতে হাসায়, হাসাতে হাসাতে কাঁদায়। শততম ওয়ানডেতে যেমন জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে, শততম টেস্টেও তৃপ্তির ঢেঁকুর তুলে জয় দিয়েই।


২০১৭-০৩-১৯ ৮:৩৯:৫৩ পিএম
টিক্কা বললেন, আমরা আগে গুলি চালাইনি

টিক্কা বললেন, আমরা আগে গুলি চালাইনি

জনগণের প্রতিনিধির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর না করে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী নিরস্ত্র বাঙালির ওপর অন্যায় যুদ্ধ চাপিয়ে দেয়। নিরস্ত্র বাঙালি সাময়িকভাবে পিছু হটতে থাকে। কিন্তু বীর বাঙালি যার কাছে যা আছে তাই নিয়ে ন্যায়যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাই একাত্তরের জুন-জুলাইয়ের দিকেই যুদ্ধ পরিস্থিতি পাল্টে যেতে থাকে।


২০১৭-০৩-১৯ ৮:১৪:৫৭ এএম
‘টাইগার নিয়াজী’ হয়ে গেলেন ‘বাংলার শৃগাল’

‘টাইগার নিয়াজী’ হয়ে গেলেন ‘বাংলার শৃগাল’

মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ইন্টার্ন কমান্ডার ছিলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমির আব্দুল্লাহ খান নিয়াজী। তিনি দাবি করেন, তদানীন্তন ইয়াহিয়া খানের সরকার জুলফিকার আলী ভুট্টোর পরামর্শেই পরিকল্পিতভাবে ১৯৭১ সালে পূর্ব পাকিস্তান পরিত্যাগ করেছে। জেনারেল নিয়াজী তার ‘দ্য বিট্রেয়াল অব ইস্ট পাকিস্তান’ বইয়ে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে পূর্ব পাকিস্তানে পরিচালিত গণহত্যা ও যুদ্ধাপরাধের জন্য ইয়াহিয়া ও ভুট্টোকেই দায়ী করেন। 


২০১৭-০৩-১৮ ১:২৫:০৪ পিএম