bangla news
মানুষ মানুষের জন্য

মানুষ মানুষের জন্য

১.

এটি এমন একটি সময় যখন মানুষজন করোনা ভাইরাস ছাড়া আর কিছু নিয়ে কথা বলছে না। এর মাঝেই পৃথিবীর অসংখ্য মানুষ ঘরের ভেতর স্বেচ্ছাবন্দী হয়ে থেকেছে। এখন অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছে কখন ঘর থেকে বের হয়ে আবার আগের জীবনে ফিরে যাবে। কতোখানি আগের জীবনে ফিরে যেতে পারবে, সেটা নিয়েও অনেকের ভেতর সন্দেহ। ঘর থেকে বের হলেও হয়তো মুখে মাস্ক লাগিয়ে বের হতে হবে, একজন থেকে আরেকজনকে সবসময় দূরে দূরে থাকতে হবে, শুধু তাই নয়, কে জানে হ্যান্ডশেক জাতীয় বিষয়গুলো পৃথিবী থেকেই উঠে যাবে কী না! সেগুলো হচ্ছে ভবিষ্যতের ব্যাপার, আপাতত আমরা অপেক্ষা করছি কখন এই ভয়াবহ দুর্যোগটি নিয়ন্ত্রণের মাঝে আসে।


২০২০-০৪-১৭ ১২:৫২:৩৫ এএম
আসুন মন ভালো রাখি

আসুন মন ভালো রাখি

চারিদিকে কেমন যেন একটা দম বন্ধ অবস্থা। করোনা ভাইরাসের কারণে স্বাভাবিক অনেক কিছুই বন্ধ হয়ে গেছে। সবার মনের মধ্যে একটা অজানা ভয় কাজ করছে। রাজা, বাদশাহ, প্রধানমন্ত্রী, রাজপুত্র, মন্ত্রী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ কেউই বাদ পড়েননি। কিন্তু এত দুশ্চিন্তা করে লাভ কী? তার চেয়ে চলুন, মনটা ভালো রাখি।


২০২০-০৪-১৬ ৭:০৯:৩৫ পিএম
ফিউডসই হতে পারে করোনা মোকাবিলার হাতিয়ার

ফিউডসই হতে পারে করোনা মোকাবিলার হাতিয়ার

মানব বিজ্ঞান তথা নৃবিজ্ঞানের একটি পরিচিত তত্ত্ব ‘ফিউডস’। এ তত্ত্বের মূল বিষয় হলো- বিশেষ পরিস্থিতিতে নিজেদের হিংসা বিদ্বেষ ভুলে গিয়ে বড় শত্রুর মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ হওয়া। অর্থাৎ সহজভাবে বলতে গেলে- পারিবারিক সদস্যদের মধ্যে ঝগড়া থাকলেও অন্য পরিবারের সঙ্গে ঝগড়া বিবাদে নিজেদের ভেতর আন্তরিকতা কাজ করে অন্যদের মোকাবিলা করতে। একই ভাব আমরা লক্ষ্য করি কোনো দেশ বহিঃশত্রুর দ্বারা আক্রান্ত হলে। তখন রাজনৈতিক দলগুলোও তাদের মতাদর্শ ভুলে দেশের জন্য এক যুদ্ধ ছাউনিতে অবস্থান নেয় একে অপরের ওপর আস্থা রেখে। 


২০২০-০৪-১৫ ৩:১৮:৪০ পিএম
অগ্নিস্নানে পৃথিবী হোক করোনামুক্ত

অগ্নিস্নানে পৃথিবী হোক করোনামুক্ত

নববর্ষ মানে নতুনের হাতছানি। তাই তো বসন্তের শেষে আবহমান বাঙলার চিরায়ত রীতিতে মহাসমারোহে পহেলা বৈশাখ উদযাপনে মেতে ওঠে বাঙালি। উৎসব প্রিয় বাঙালির জীবনে নববর্ষ এক আনন্দোৎসব।


২০২০-০৪-১৪ ৩:৪৭:৫৮ পিএম
করোনা ঠেকাতে জার্মান যে কারণে ব্যতিক্রম

করোনা ঠেকাতে জার্মান যে কারণে ব্যতিক্রম

যুক্তরাষ্ট্রসহ ইউরোপের দেশগুলোতে করোনার কারণে এখন ত্রাহি অবস্থা। সেখানকার সরকারগুলো তাদের সর্বোচ্চ সামর্থ দিয়ে করোনা মোকাবিলার চেষ্টা করছে। তারপরও সংক্রমণ ও মৃত্যু রোধ করা যাচ্ছে না। ফলে রাষ্ট্রগুলোর এখন লক্ষ্য হচ্ছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা কমিয়ে আনা। 


২০২০-০৪-১৩ ৪:৪৯:৫৬ পিএম
এখনও কি পুলিশ দেখলে গালি আসে?

এখনও কি পুলিশ দেখলে গালি আসে?

গোটা দুনিয়া হতবাক! পরপর দুটি বিশ্বযুদ্ধ আর অসংখ্য আঞ্চলিক যুদ্ধের ক্ষত যে পৃথিবীর বুকে ফেনিয়ে তুলেছিল রক্ত; সেই বিশ্বযুদ্ধ, সেই সংঘাত পার হলেও এত মৃত্যু, এত স্বজনহারা মানুষ কখনো দেখেনি দুনিয়া। বাংলাদেশও করোনা সংক্রমণের ৩য় ধাপে ঢুকে পড়েছে। 


২০২০-০৪-১৩ ৩:৩৯:৪৫ পিএম
করোনারকালে জীবজন্তুর সুরক্ষাপ্রশ্ন

করোনারকালে জীবজন্তুর সুরক্ষাপ্রশ্ন

হোক ঢিলেঢালা কী জোরালো, কার্যত লকডাউন চলছে। বন্ধ হয়ে আছে হোটেল-রেস্তোরাঁ দোকানপাট। বারান্দা দিয়ে রাস্তায় তাকালে অনেক চেনা-অচেনা কুকুরের ভিড়। কুকুরগুলো ক্ষুধায় অস্থির হয়ে আছে। চারপাশের শংকা ও দুম করে ঘটতে থাকা একটা পরিবর্তন হয়তো এই কুকুরেরাও বুঝতে পারছে না। তাই ভীষণ ক্ষুধার্ত হলেও হামলে পড়ছে না কারো ওপর।


২০২০-০৪-১২ ২:৫৩:৪১ পিএম
চাল চোরদের জেলে দিন বিদায় হোন ব্যর্থরা

চাল চোরদের জেলে দিন বিদায় হোন ব্যর্থরা

না, অপেক্ষা করতে পারব না। চাল চোরদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিন। ধরা পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই জেল। প্রজ্ঞাপন জারি করুন, জনপ্রতিনিধি থাকার কোনো অধিকার তাদের নেই। চোরের রক্ষকদেরও ছাড় দেওয়া যাবে না। এলজিআরডি মন্ত্রণালয়কে বসে থাকলে হবে না। নির্দেশ জারি করতে হবে জনপ্রতিনিধি পদ থেকে ওদের চিরতরে বিদায়ের। শুধু বিদায় নয়, আর কোনো দিন এই চোরেরা ভোট করতে পারবে না। কঠোর হাতে চোর দমন চাই। প্রয়োজনে এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ে কমিটি হোক। একজন অতিরিক্ত সচিব কমিটির নেতৃত্বে থাকুক। এ কমিটির কাজ শুধুই চাল চোরদের বাদ দেওয়া। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সেল থাকবে। এ সেলের কাজ ওদের জেল নিশ্চিত করা।


২০২০-০৪-১২ ৮:১০:১২ এএম
করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সমন্বিত কার্যক্রমের গুরুত্ব

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সমন্বিত কার্যক্রমের গুরুত্ব

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় চিকিৎসক, নার্সসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা অগ্রগামী সৈনিক, এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারাই আছেন রোগীর পাশে। বিভিন্ন দেশে করোনা ঝুঁকির মধ্যে চিকিৎসা দিয়ে প্রশংসিতও হচ্ছেন তারা। এরপরও গুটিকয়েক স্বাস্থ্যকর্মীর দায়িত্বে অবহেলা এবং ঢালাওভাবে এই পেশার মানুষ সম্পর্কে নেতিবাচক প্রচারণায় প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে পুরো স্বাস্থ্যখাত।


২০২০-০৪-১১ ২:৫৪:৩৫ পিএম
করোনা: বোরো মৌসুম নিয়ে শঙ্কা

করোনা: বোরো মৌসুম নিয়ে শঙ্কা

করোনারকালে দুনিয়াজুড়ে যখন লকডাউন, থেমে নেই গ্রামজনপদের কৃষিজীবন। পুরুষেরা জমিনে যাচ্ছেন, নারীরা মাচায় তুলে দিচ্ছেন লাউ-কুমড়োর লত। এই তীব্র করোনা সংকটেও বোরা মৌসুমের ফসল তোলার জন্য দেশের গ্রামজনপদ নিদারুণ শঙ্কা নিয়ে অপেক্ষা করছে। নিরাপদ সুরক্ষা বিধি মেনে কীভাবে বোরো মৌসুমের ফসল তোলা যাবে কৃষকের ঘর থেকে চাতাল, বাজার কী সরকারের গুদাম অবধি এখনো এসবের কোনো প্রস্তুতি নেই। তাহলে কীভাবে আমরা সামাল দেবো করোনার ক্রান্তিকাল?


২০২০-০৪-১১ ১:২৫:২৫ পিএম
সিদ্ধান্ত সাংঘর্ষিক

সিদ্ধান্ত সাংঘর্ষিক

অপরাধ প্রতিকার এবং প্রতিরোধের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ পুলিশ সাধারণত বিগত বছরে সংঘটিত অপরাধের ধরণ, অপরাধের মাত্রা, অপরাধের ভয়াবহতা, অপরাধের বৈচিত্রতা তথা অপরাধের গতি প্রকৃতি দেখে কৌশল ও পদ্ধতি অবলম্বন করে থাকে যার পরিপ্রেক্ষিতে জনগণের জানমালের সুরক্ষা ও সামগ্রিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী ভূমিকা পালন করা সম্ভব হয়। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, ব্যবস্থা গ্রহণ করা সত্ত্বেও সময়ের ব্যবধানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি কেনইবা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে, অপরাধের সংখ্যাও প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে কিংবা নিয়ন্ত্রণ করা দুষ্কর হয়ে যাচ্ছে? প্রশ্নের সঠিক উত্তর হচ্ছে, পুলিশের কাছে অপরাধ এবং অপরাধীর সঠিক তথ্য লিপিবদ্ধ থাকে না। যার কারণে পুলিশ যে ধরনের প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করে সেগুলো খুব বেশি কার্যকর না। 


২০২০-০৪-১০ ৭:৩৫:৩৫ পিএম
উখিয়া টু টেকনাফ: আরেকটি দেশ?

উখিয়া টু টেকনাফ: আরেকটি দেশ?

সালমা বানু। বয়স ষাটের কাছাকাছি। খুপরি ঘর থেকে কখন বের হয়ে আমার পেছনে এসে দাঁড়িয়েছেন টের পাইনি। হঠাৎ খেয়াল করতেই জিজ্ঞেস করলাম কেমন আছেন? বললেন, ভাল আছি। কতদিন হলো আসছেন, হাত দেখিয়ে বললো, ৩ বছর। আর যেতে চান না? যদি হাত, পা বেঁধে পাঠিয়ে দেয় তাহলেই সম্ভব। তো সরকার যদি আর খাওয়া, পরা বা সুযোগ সুবিধা না দেয় তাহলে কী করবেন? রিজিকের মালিক আল্লাহ। আল্লাহই একটা ব্যবস্থা করবে। একটা উছিলাতেই তো তিনি এখানে আমাদের নিয়ে এসেছেন। বাকি ব্যবস্থা তিনিই করবেন। আপনারা তো না হয় মেয়েমানুষ ঘরের ভেতরেই থাকতে পারেন। কিন্তু পুরুষগুলো বার্মায় যেতে চায় না? অজানা ভাষার খানিকটা তর্জমা করে যা বুঝলাম তা হলো, যদি বিচার হয়, যদি বিচার তাদের পক্ষে আসে তাহলে যাবে।


২০২০-০৪-১০ ৬:৪৭:১৫ পিএম
করোনা: সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন শনাক্ত করা 

করোনা: সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন শনাক্ত করা 

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় বাংলাদেশে এখন চলছে সাধারণ ছুটি। যদিও প্রয়োজন ছিল আমাদের লকডাউন। ‘লকডাউন’ শব্দটি ইংরেজি হলেও এর মর্মার্থ বুঝতে আমাদের অসুবিধা হয় না। সরকার কাগজে কলমে ‘লকডাউন’ না বললেও কার্যত সব বন্ধ করা হয়েছে। আর তাতে লকডাউনের সব আয়োজন সম্পন্ন হছে। আর সেজন্য করোনার চিকিৎসা ও রোগ নির্ণয় থেকে বেশি জোর দেয়া হচ্ছে ত্রাণ কার্যক্রমের ওপর। কিন্তু সারাদেশে লোকজনের চলাচল দেখলে মনে হয় না আমরা লকডাউনে আছি। 


২০২০-০৪-০৮ ৭:১৮:৩৪ পিএম
এত্তো উজান উজাইছো ক্যা, কইতে পারো!

এত্তো উজান উজাইছো ক্যা, কইতে পারো!

সাহিত্য বোদ্ধারা দু’ভাবেই বলেছেন কথাটি- ‘সকলে কবি নয়, কেউ কেউ কবি’। আবার অন্যত্র বলেছেন, সকলে কমবেশি কবি হয়ে ওঠেন বিশেষ পরিস্থিতিতে। সত্যি কথা বলতে কী ভাই; আমি কবি নই। তবে মাঝেমধ্যে কবি হতে বড্ড সখ হয়। দু’ কলম লিখি, কাগজ ছিঁড়ে ছুড়ে ফেলে দিই বাস্কেটে। আর ভাবি; এটা কোনো লেখার মতন কিছু হলো কী! কখনো-সখনো পুরাতন কিছু লেখা- নিজেই পাঠক... পাঠ করি অবসরে। অবাক হই, আরে এমন করে আমি লিখলাম কখন- কীভাবে? যাই হোক, আমি যে কতোবড় মূর্খভাবিক তা আপনাদের একদিন শোনাবো, কথা দিলাম।


২০২০-০৪-০৮ ৫:২৭:৫২ পিএম
ব্যবসায়িক দুর্যোগে কর্মী ছাঁটাই

ব্যবসায়িক দুর্যোগে কর্মী ছাঁটাই

করোনা ভাইরাসের প্রকোপে ব্যবসা-বাণিজ্যের এই দুর্যোগময় পরিস্থিতিতে সমগ্র বিশ্বসহ বাংলাদেশের অর্থনীতি একটা চরম নিবর্তনে পতিত হয়েছে। ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফাণ্ড (আইএমএফ), মরগান স্ট্যান্‌লি, গোল্ডম্যান স্যাক্সসহ বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যেই বিশ্বব্যাপী মন্দার ঘোষণা দিয়েছে।


২০২০-০৪-০৭ ৪:৪১:০৭ পিএম