bangla news

উইগুর মুসলিমদের সমর্থনে ওজিলের টুইটে চীনের ক্ষোভ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-১৫ ৭:৫২:১১ পিএম
.

.

সংখ্যালঘু উইগুর মুসলিমদের ওপর চীনের অমানবিক আচরণে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিলেন আর্সেনালের জার্মান মিডফিল্ডার মেসুত ওজিল। তার সেই মন্তব্যের জেরে রোববার (১৫ ডিসেম্বর) রাতে আর্সেনাল বনাম ম্যানচেস্টার সিটির মধ্যকার প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচ না দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে চীনের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত টেলিভিশন চ্যানেল ‘সিসিটিভি’।

চীন সরকারের বিরুদ্ধে জিনজিয়াং প্রদেশের মুসলিমদের ওপর দমন-পীড়ন চালানোর অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি বন্দিশিবিরে আটক ও নির্যাতনের বিষয়ে সরকারি একটি গোপন নথি ফাঁস হওয়ার পর সারা বিশ্বে নিন্দার ঝড় বয়ে যায়। সেই নথি থেকে জানা গেছে, সেখানকার প্রায় ২০ লাখ মানুষকে অন্যায়ভাবে বন্দি করে রাখা হয়েছে। সেখানে নির্যাতনের মাধ্যমে উইগুর মুসলিমদের জোর করে চীনা সংস্কৃতি শেখানো হচ্ছে।

এ নিয়ে পশ্চিমা মিডিয়া অনেকদিন থেকেই সরব থাকলেও মুসলিম বিশ্ব অনেকটা নীরব ভূমিকা পালন করছে। এ নিয়েই ক্ষোভ প্রকাশ করে তুর্কি বংশোদ্ভুত মুসলিম ফুটবলার ওজিল টুইটারে লিখেছেন, ‘পূর্ব তুর্কিস্তান (শিনজিয়াং) মুসলিম উম্মাহর রক্তে রঞ্জিত হচ্ছে। অত্যাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো জনতাকে তাদের নিজ ধর্ম থেকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা করা হচ্ছে।’

ওজিল আরও লিখেছেন, ‘তারা (চীন সরকার) কোরআন পুড়িয়ে দিচ্ছে। তারা মুসলিমদের মসজিদ বন্ধ করে দিচ্ছে। তারা স্কুল বন্ধ করে দিচ্ছে। তারা মুসলিমদের ধর্মীয় নেতাদের মেরে ফেলছে। পুরুষদের জোর করে বন্দি শিবিরে আটকে রাখা হচ্ছে আর নারীদের চীনা পুরুষদের সঙ্গে থাকতে বাধ্য করা হচ্ছে। নারীদের জোর করে চীনা পুরুষদের বিয়ে করতে বাধ্য করা হচ্ছে।’

‘কিন্তু মুসলিম বিশ্ব নীরব। তারা একটা কথাও বলছে না। তারা তাদের (উইগুরদের) ত্যাগ করেছে। তারা কি জানে না যে, অন্যায় করা আর অন্যায় সহ্য করা সমান কথা?’

এদিকে ওজিলের মন্তব্যের জেরে বিতর্ক দেখা দেওয়ার পর এ নিয়ে নিজেদের অবস্থান করতে এক টুইটে আর্সেনাল এক বিবৃতিতে লিখেছে, ‘সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মেসুত ওজিল যে মন্তব্য করেছে, তা তার একান্তই নিজস্ব। ফুটবল ক্লাব হিসেবে আর্সেনাল কখনোই কোনো রাজনৈতিক বিষয়ের সঙ্গে নিজেকে না জড়ানোর নীতিতে অটল।’

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফুটবল আর্সেনাল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-15 19:52:11