ঢাকা, বুধবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৬ রজব ১৪৪৪

ভারত

মমতা-শুভেন্দুর বিপক্ষে বামপ্রার্থী মীনাক্ষি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৭ ঘণ্টা, মার্চ ১০, ২০২১
মমতা-শুভেন্দুর বিপক্ষে বামপ্রার্থী মীনাক্ষি

কলকাতা: একুশের পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে সবার নজর পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দীগ্রামে। কারণ সেখানের প্রার্থী স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবার মমতার বিপক্ষে বিজেপির হয়ে দাঁড়িয়েছেন তারই এক সময়ের ছায়াসঙ্গী শুভেন্দু অধিকারী।  

এই কেন্দ্রটি নিয়ে খোদ বামফ্রন্ট চেযারম্যান বিমান বসু বলেছিলেন ‘নন্দীগ্রাম হাইভোল্টেজ কেন্দ্র’, তাই সব বিবেচনা করে বাম-কংগ্রেস-আব্বাসের সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী ঘোষণা করা হবে।

তবে আসনটিতে তারুণ্যের প্রতি ভরসা রেখে বুধবার (১০ মার্চ) সেই নন্দীগ্রামেই প্রার্থী ঘোষণা করলো বামেরা। নন্দীগ্রাম থেকে বামেদের প্রতীকে প্রার্থী করা হয়েছে তাদেরই যুব শাখা সংগঠন ডিওয়াইএইআই-য়ের রাজ্য সভানেত্রী মীনাক্ষি মুখোপাধ্যায়কে।

বামেদের নানা কর্মসূচিতে প্রথমসারির নেতাদের সঙ্গে সমান তালে পাল্লা দিয়ে সবার নজর কেড়েছেন মীনাক্ষি মুখোপাধ্যায়। এমনকী অল্প বয়সেই বিরোধীদের চোখের কাঁটা হয়ে উঠেছেন তিনি। বাংলা তো বটেই, হিন্দি ও ইংরেজিতেও সাবলীল মীনাক্ষি। বর্ধমানের মেয়ে মীনাক্ষিকেই তাই হেভিওয়েট কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়েছেন আলিমুদ্দিন।

বাম-কংগ্রেস জোট আব্বাস সিদ্দিকির ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফ্রন্টের সঙ্গে হাত মেলানোর পর, নন্দীগ্রামে হয়ে আব্বাসের দলের কাউকেই প্রার্থী করা হতে পারে বলে জল্পনা চলছিল রাজ্য রাজনীতিতে। কিন্তু বুধবার সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বাম দপ্তর আলিমুদ্দিন থেকে মীনাক্ষির নামে সিলমোহর পড়লো।

ফলে অনেকাংশে উত্তাপ বেড়ে গেলো নন্দীগ্রাম কেন্দ্রে। কারণ কোনো দলের পক্ষে জয়ের হাতছানি খুব সহজে আসবে না বলে স্বীকার করে নিচ্ছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৬ ঘণ্টা, মার্চ ১০, ২০২১
ভিএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa