bangla news

ডাকসু নির্বাচনে সরকার বাধা হবে না: নজরুল

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-১১ ২:৫৩:০২ পিএম
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন নজরুল ইসলাম খান/ছবি: বাদল

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন নজরুল ইসলাম খান/ছবি: বাদল

ঢাকা: ডাকসু নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টির পথে সরকার বাধা হবে না বলে ক্ষমতাসীন দলের প্রতি বিশ্বাস রাখতে চায় বিএনপি।

সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়াউর রহমানের সমাধিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান একথা বলেন।

এর আগে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের নবগঠিত কেন্দ্রীয় কমিটির নেতাদের নিয়ে জিয়ার সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন তিনি।
 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে সহাবস্থানের বিষয়ে জানতে চাইলে নজরুল ইসলাম খান বলেন, এখনও সহাবস্থান নেই। তবে সরকারি দলের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টির পথে তারা বাধা হবে না। আমরা তাদের বিশ্বাস করতে চাই এবং আমরা চাইবো আমাদের ছাত্রসমাজের সংগঠনগুলো যাতে তাদের মত প্রকাশ ও নির্বাচনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণের সুযোগ পায়। আর ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে। আর তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ডাকসু নির্বাচনে নির্বাচিত করতে পারে।

ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সারাদেশে যেমন বিএনপিকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড করতে দেওয়া হচ্ছে না, আমাদের নেতাকর্মীরা যেমন তাদের ঘর-বাড়িতে থাকতে পারছে না, তেমনি এদেশের ছাত্র সমাজ দীর্ঘদিন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলোতে যেতে পারে না। আমরা যারা বিরোধীদল করি তাদেরই নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছে, মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করা হচ্ছে, খুন ও গুম করা হয়েছে। 

‘এরকম একটি জটিল পরিস্থিতিতে আমাদের বহু প্রতীক্ষিত ডাকসু নির্বাচন হতে যাচ্ছে। আমরা বলেছি, ডাকসু নির্বাচন যাতে জাতীয় ও স্থানীয় সরকার ভোটের মতো না হয়- এটিই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।’ 

নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা আশা করছি, যারা গণতন্ত্র চায় আর যারা গণতন্ত্র চায় না, যারা গণতন্ত্র জবাই করে আর যারা গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করে- এই লড়াইটা হবে মূলত তাদের মধ্যে। সেই লড়াইয়ে গণতন্ত্রের পক্ষের শক্তি বিজয়ী হবে বলে আমরা আশাকরি। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সমাজ সুষ্ঠু নির্বাচন করতে সরকারকে বাধ্য করবে বলেও মন্তব্য করেন নজরুল ইসলাম খান।
 
এসময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, ড্যাবের আহ্বায়ক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, সদস্য সচিব ডা. মো. ওবায়দুল কবির খান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নয়ন, কৃষকদলের সহ-দফতরসম্পাদক এসকে সাদী, কেন্দ্রীয় নেতা মাইনুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯
এমএইচ/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-02-11 14:53:02