ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

বাঙলা কলেজে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৬ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২২
বাঙলা কলেজে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

ঢাকা: রাজধানীর বাঙলা কলেজে এক ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ প্রতিষ্ঠানের এক ছাত্রের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন ভুক্তভোগী।

অভিযোগ ওঠা ছাত্রের নাম হাবিবুর রহমান হাবিব। তিনি পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৬-১৭ সেশনের ছাত্র। বুধবার (১৮ মে) দুপুর ২টা ১০ মিনিটে বাঙলা কলেজের নতুন ভবনের তৃতীয় তলায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন ভুক্তভোগী নিজেই। তিনি বলেন, বুধবার আমি নতুন ভবনের দ্বিতীয় তলায় লাইব্রেরিতে পড়তে যাই। সেখান থেকে ফেরার পথে সিঁড়িতে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র হাবিবুর রহমান হাবিবের সঙ্গে দেখা হয়। কথা বলার এক পর্যায়ে তিনি আমার হাত ধরার চেষ্টা করেন। আমি বাধা দিলে তিনি আমায় জড়িয়ে ধরে অসৎ উদ্দেশ্যে গায়ে হাত দেন। আমাকে খুব বাজেভাবে হয়রানি করেন। আমি চিৎকার করলে তিনি আমার মুখ চেপে ধরেন।

ভুক্তভোগী আরও বলেন, ঘটনাটি দুপুরের খাবারের সময় ছিল। নতুন ভবন পুরোপুরি চালু না হওয়ায় কোনো শিক্ষার্থী ছিল না। এ ঘটনায় তিনি ও তার পরিবার শঙ্কিত বলেও জানান ভূক্তভোগী।

ঘটনার পর দিন বৃহস্পতিবার (১৯ মে) হাবিব ভুক্তভোগীর কাছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক মেসেঞ্জারে ক্ষমা চান। তিনি লেখেন- ‘ক্ষমা চাইছি। দয়া করে ক্ষমা করে দাও। আর জীবনেও এমন অপরাধ হবে না৷ আমি সত্যিই লজ্জিত। ’

এ বিষয়ে জানতে চেয়ে ফোন করলে হাবিব বাংলানিউজকে বলেন, আমি মসজিদে আছি। পরে কথা বলছি।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে সরকারি বাঙলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. ফেরদৌসী খানকে কয়েকবার কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বাঙলা কলেজ শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর মিটুল চৌধুরী। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে বসেছি। দুই বিভাগ মিলে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কলেজ খুললে বিস্তারিত আলোচনা করব।

এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি বলে জানান দারুস সালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, কোনো অভিযোগ আমরা এখনও পাইনি৷ অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা যায়, হাবিবুর রহমান হাবিব এর আগেও একাধিকবার ক্যাম্পাসে বিশৃঙ্খলা করেছেন। বাঙলা কলেজ ছাত্রলীগ নেতা রুবেলকে  ক্যাম্পাসে কুপিয়ে আহত করেন। এ ঘটনায় হাবিবের বিরেুদ্ধে দারুসসালাম থানায় মামলা হয়। এছাড়া গত ১২ এপ্রিল বাঙলা কলেজ সাংবাদিক সমিতির দুই সাংবাদিককে কলেজ ক্যাম্পাসে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন ভূক্তভোগী। তিনি বলেন, আমার শরীর থেকে রক্ত ঝরেছে। আমি এখনো বিচাই পাইনি। পুলিশ আসামি ধরছে না।  

হাবিব বাঙলা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক বলে তার ফেসবুক প্রোফাইলে লেখা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৬ঘণ্টা, মে ২০, ২০২২
এমএমআই/এসএ/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa