bangla news

চলন্তিকা বস্তিতে আগুন, ভস্মীভূত শতাধিক ঘর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-২৪ ৫:৪৫:০০ পিএম
অগ্নিকাণ্ডে ভস্মীভূত চলন্তিকা বস্তি। ছবি: বাংলানিউজ

অগ্নিকাণ্ডে ভস্মীভূত চলন্তিকা বস্তি। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: রাজধানীর মিরপুরের চলন্তিকা বস্তিতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একশর বেশি ঘর আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) ভোর সোয়া ৪টার দিকে দু’টি সিলিন্ডারের বিস্ফোরণে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছে ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট।

এ ঘটনায় একজন নারী আহত হয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

রূপনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বাংলানিউজকে বলেন, চলন্তিকা বস্তিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শারমিন (৪০) নামে এক নারী আহত হয়েছেন।  

চলন্তিকা বস্তির বাসিন্দা জোসনা বলেন, ভোররাতের আগুনে আমাদের পাঁচটি ঘর পুড়ে গেছে। আমরা একটি ঘরে থাকতাম আর বাকি ঘরগুলো ভাড়া দিতাম।

তিনি বলেন, কিছুদিন পরপরই আমাদের বস্তিতে আগুন লাগে। ভোট নেওয়ার সময় নেতারা আমাদের কাছে আসে। আর আগুন লাগলে আমাদের খোঁজ খবরও নেয় না ঠিকমতো।

বস্তির অপর বাসিন্দা ইয়ানুর বেগম জানান, আগুনে পুড়ে সব নিঃশেষ হওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি আসে। হাতে গোনা অল্প কয়েকটি ঘরেরই আগুন নেভাতে পারে তারা।

চলন্তিকা বস্তির বাসিন্দা মো. হানিফ বাংলানিউজকে বলেন, ২০১৯ সালের ১২ আগস্ট প্রথম আগুন লাগে এখানে। এরপর এ এলাকায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে একটি সাইনবোর্ড লাগানো হয়। এতে বলা হয় নিম্ন ও নিম্ন-মধ্যবিত্তদের পুর্নবাসনের জন্য ফ্ল্যাট প্রকল্পের নির্ধারিত স্থান এটি। আমরাই সাইনবোর্ড টানানোর পর হাইকোর্টে রিট করেছি। ৩৬ জন মুক্তিযোদ্ধার সঙ্গে আরও কিছু লোকজন মিলে মোট ১২৬ জন এই রিটের পক্ষে স্বাক্ষর করেছে। রিটে জানতে চাওয়া হয়েছে এখানে যদি বস্তিবাসীকে উচ্ছেদ করে ভবন করা হয় সেই ভবনে কারা থাকবে? যদি বস্তিবাসীকে উচ্ছেদ করে অন্য কাউকে সেই ভবনে তোলা হয় তাহলে আমরা এই জায়গা ছেড়ে দিব না। আর যদি বস্তিবাসীদের জন্য এখানে ভবন করা হয়, তাহলে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২০
এমএমআই/এবি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-24 17:45:00