bangla news

গৃহবধূকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৭ ১২:৪৩:০৮ পিএম
পুলিশের সঙ্গে আটক ওই গৃহবধূর সাবেক স্বামী মেহেরুল ইসলাম (২২) ও তার সহযোগী গোপাল চন্দ্র বর্মন। ছবি: বাংলানিউজ

পুলিশের সঙ্গে আটক ওই গৃহবধূর সাবেক স্বামী মেহেরুল ইসলাম (২২) ও তার সহযোগী গোপাল চন্দ্র বর্মন। ছবি: বাংলানিউজ

জয়পুরহাট: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার ছোট যমুনা নদীর তীরে নির্জন স্থানে ডেকে নিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার সাবেক স্বামী ও দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে।

শনিবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা।

এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর সাবেক স্বামী মেহেরুল ইসলাম (২২) ও তার সহযোগী গোপাল চন্দ্র বর্মনকে (২০) আটক করেছে পুলিশ।

আটক মেহেরুল ইসলাম উপজেলার কেশবপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার সহযোগী গোপাল চন্দ্র বর্মনও একই গ্রামের।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর রহমান জানান, এক বছর আগে ঢাকায় কর্মরত ওই গার্মেন্ট কর্মীর সঙ্গে পরিচয় হয় মেহেরুলের। এক পর্যায়ে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। পরে তাকে গোপনে তালাক দিয়ে মেহেরুল পাঁচবিবিতে পালিয়ে আসে। এ অবস্থায় স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে চাপ সৃষ্টি করলে মেহেরুল তাকে পাঁচবিবিতে আসতে বলে।

শনিবার বিকেলে ওই গৃহবধূ পাঁচবিবিতে আসলে বাড়িতে নেওয়ার কথা বলে স্থানীয় ছোট যমুনা নদীর তীরে নির্জন স্থানে নিয়ে দুই সহযোগীসহ পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় মেহেরুল। পরে স্থানীয়রা ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাপসপাতালে ভর্তি করে।

ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে মেহেরুল ও গোপালকে আটক করে। অন্যজনকে আটকের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
এইচএডি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   জয়পুরহাট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-17 12:43:08