bangla news

রাজশাহীতে ১ জুলাই থেকে লাল-সবুজ অটোরিকশা চলাচল শুরু

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১০ ৮:১৩:২৭ পিএম
সভায় বক্তব্য রাখছেন মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। ছবি: বাংলানিউজ

সভায় বক্তব্য রাখছেন মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: আগামী ১ জুলাই থেকে রাজশাহী মহানগর এলাকায় সকাল-বিকেল দুই শিফটে চলাচল করবে লাল-সবুজ রঙের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা। অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচলে শৃঙ্খলা আনয়নের লক্ষ্যে এ ব্যাপারে একটি নীতিমালা প্রস্তুত করেছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন।

সোমবার (১০ জুন) বিকেলে নগর ভবনের সরিৎ দত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে মহানগরীর ইজিবাইক মালিক-শ্রমিক সমবায় সমিতি ও ইজিবাইক শ্রমিক ইউনিয়ন নেতাদের সঙ্গে সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনের এক মতবিনিময় সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বিগত মেয়াদে আমি অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচলে অনুমতি দিয়েছিলাম। বিগত কয়েক বছরে অটোরিকশা ও চার্জার রিকশার সংখ্যা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়ে দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এজন্য নগরবাসীর চলাচলে সুবিধা আনতে ও যানজট নিরসরে অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচলে শৃঙ্খলা আনার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

মহানগরীতে দিনে দুই শিফটে লাল-সবুজ রঙের অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচল করবে। আগামী ১ জুলাই থেকে এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের মাধ্যমে সারাদেশে দৃষ্টান্ত হবে রাজশাহী সিটি করপোরেশন। এ ব্যাপারে মহানগর পুলিশসহ সবার সহযোগিতা কামনা করেন মেয়র।

মতবিনিময় সভায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচলে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রস্তুতকৃত নীতিমালা পড়ে শোনান প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক।

নীতিমালায় উল্লেখ করা হয়েছে, সকল ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও চার্জার রিকশার অনলাইন নিবন্ধন আগামী ১ জুলাই থেকে শুরু হবে। ৩০ জুনের পর মহানগরীতে সরু চাকার কোনো রিকশা চলাচল করতে পারবে না। যেসব অটোরিকশা ও চার্জার রিকশার মালিক রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ভোটার/ নাগরিক নয়, তাদের রেজিস্ট্রেশন বাতিল হবে। কোনো অটোরিকশা ও চার্জার রিকশার মালিকের নামে ৫টির অধিক অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা থাকলে ৫টি বহাল রেখে বাকিগুলোর রেজিস্ট্রেশন বাতিল হবে।

এতে আরও জানানো হয়, যেসব অটোরিকশা ও চার্জার রিকশার রেজিস্ট্রেশন ৫ বছর পূর্ণ হয়নি, মালিকরা এসব অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা নবায়ন ফি দিয়ে নবায়ন করতে পারবেন। অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা দু'ভাগে বিভক্ত হবে ও জোড় সংখ্যার রঙ সবজু ও বিজোর সংখ্যার রঙ লাল হবে। নিবন্ধন কার্ডের নম্বর অনুযায়ী বিজোড় সংখ্যা লাল ও জোড় সংখ্যা সবুজ রঙের সম্পূর্ণ হুড ও যান রঙ করে ব্যবহার করতে হবে।

মাসের প্রথম সপ্তাহে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত লাল রঙ এবং দুপুর ২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সবুজ রঙের অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচল করবে। পরের সপ্তাহে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সবুজ রঙ এবং দুপুর ২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত লাল রঙের অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচল করবে। শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন এবং রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত উভয় রঙের অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচল করতে পারবে। রুট প্ল্যান অনুযায়ী যানবাহন চলাচল করবে। যানবাহনগুলো নিবন্ধন কার্ড ব্যতিত মহানগর এলাকায় চলাচল করতে পারবে না।

মালিক, চালক ও অটোরিকশা ও চার্জার রিকশার পৃথক পৃথক নিবন্ধন থাকবে। রিকশা চালকদের সিটি করপোরেশন থেকে পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। সব চালকদের নির্দিষ্ট পোশাক পরিধান করতে হবে বলেও জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০১৯
এসএস/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   রাজশাহী রাজশাহী সিটি করপোরেশন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-10 20:13:27