ঢাকা, শনিবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

বঙ্গবন্ধু হত্যা: কমিশন চান বিচারপতি খায়রুল হক

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২৪ ৮:৫৯:২১ পিএম

ঢাকা: আইন কমিশনের চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধান বিচারপতি এ বি এম খায়রুল হক বলেছেন, বঙ্গুবন্ধু হত্যায় আরো যারা জড়িত সে ব্যাপারে পরবর্তী প্রজম্মের কাছে প্রকৃত সত্য তুলে ধরতে সরকার যেন অতি শিগগির একটি কমিশন গঠন করে। যে কমিশন দেশে-বিদেশে, এখনও যারা বেঁচে আছেন তাদের সাক্ষ্যগ্রহণ করে প্রকৃত সত্য তুলে ধরবে।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর ৪৪ তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শনিবার (২৪ আগস্ট) বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট আয়োজিত এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ।

সাবেক প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হক বলেন, জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বঙ্গবন্ধু তার যোগ্য নেতৃত্বে ধাপে ধাপে এদেশকে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দিকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। বিশ্বে মাত্র দুইজন নেতা রাষ্ট্র সৃষ্টি করতে পেরেছেন। এর মধ্যে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের স্রষ্টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বলিভিয়া নামক রাষ্ট্রের স্রষ্টা দক্ষিণ আমেরিকার সিমন ডি বলিভিয়ার।
 
সভাপতির বক্তব্যে বিচারপতি খোন্দকার মূসা খালেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বের গুণাবলীর পাশাপাশি তার মানবিক গুণাবলীও ছিল অপরিসীম। ভিন্ন মতাবলম্বী হলেও তিনি বড়দের যথেষ্ট শ্রদ্ধা করতেন। বিচার বিভাগের নিম্নপদের কর্মকর্তারাও যেন উক্ত বিভাগের সর্বোচ্চ আসনে আসীন হতে পারেন সে ব্যাপারে বঙ্গবন্ধু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন।  

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন ইনস্টিটিউটের পরিচালক (প্রশাসন) এস এম জিয়াউর রহমান ও পরিচালক (গবেষণা ও প্রকাশনা) মীর মো. এমতাজুল হকসহ অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। 

আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবার ও আত্মীয়-স্বজন যারা ১৫ আগস্ট নির্মমভাবে প্রাণ হারিয়েছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।
 
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ইনস্টিটিউটের উপ-পরিচালক (গবেষণা ও প্রকাশনা) (যুগ্ম জেলা জজ)  ড. মো. আলমগীর, উপ-পরিচালক (প্রশিক্ষণ) (যুগ্ম জেলা জজ) আল আসাদ মো. মাহমুদুল ইসলাম, উপ-পরিচালক (প্রশাসন) আলমগীর এস রহমান, সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ বদিউজ্জামান, সহকারী পরিচালক (প্রশিক্ষণ) বেগম মেহেনাজ সিদ্দিকী ও বেগম নাহিদ নিয়াজী, গবেষণা কর্মকর্তা (সিনিয়র সহকারী জজ) বেগম নাজমুন নাহার নিপু, হাসান মো. আরিফুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 

এছাড়া ৩৯তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশগ্রহণকারী ৪৫ জন সহকারী জজও ওই অনুষ্ঠানে ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ২৪, ২০১৯
ইএস/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-24 20:59:21