ঢাকা, বুধবার, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

রাম তো নেপালি, অযোধ্যা নেপালে অবস্থিত ছিল: কেপি শর্মা ওলি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২০
রাম তো নেপালি, অযোধ্যা নেপালে অবস্থিত ছিল: কেপি শর্মা ওলি

বিভিন্ন ইস্যুতে ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক তলানিতে নিয়ে গেছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। এবার একেবারে অযোধ্যার ওপর নিজের দাবি জাহির করে বসলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে বললেন, রাম আসলে নেপালি!

সোমবার (১৩ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর নিবাসে অনুষ্ঠিত একটি অনুষ্ঠানে ওলি বলেন, আসল অযোধ্যা থরি শহরে অবস্থিত, বিরগুঞ্জের পশ্চিমে যেটি। কিন্তু ভারত চিরকাল দাবি করেছে যে, অযোধ্যা তাদের দেশে।

খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

এর ফলে নেপালবাসীও বিভ্রান্ত হয়ে গিয়েছেন ও তারা মনে করেছেন যে সীতা দেবীর সঙ্গে ভারতের যুবরাজ রামের বিয়ে হয়েছিল বলে ওলির দাবি।

তার কথা অনুযায়ী, আসল অযোধ্য একটি নেপালি গ্রাম, বিরগুঞ্জের কাছে।

ভারত আসলে নেপালের সংস্কৃতিকে নিজের বলে চালাতে চেয়েছে বলেও ওলি দাবি করেন।

তিনি বলেন, বাল্মীকি আশ্রম নেপালে অবস্থিত। যেখানে রাজা দশরথ পুত্র লাভের আশায় যজ্ঞ করেন সেটা রিদি বলে একটি স্থানে। তখন তো কোনো যাতায়াতের ব্যবস্থা ছিল না, তাহলে ভারতের অযোধ্যা থেকে রাম জনকপুরে এলেন কী করে সীতা দেবীকে বিয়ে করতে!

ওলি বলেন, অযোধ্যায় বসে রাম জনকপুরের কথা জানতে পারলেন কী করে। তখন তো মোবাইল বা টেলিফোন কিছুই ছিল না, তাহলে খবর পেলেন কী করে তিনি, এই প্রশ্নও তুলেছেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ০১৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২০
নিউজ ডেস্ক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa