[x]
[x]
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ১৮ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

সবচেয়ে দূরবর্তী ছায়াপথের সন্ধান

​আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০১-১৪ ৮:০৭:০১ এএম
ছবিতে চতুর্ভুজের মধ্যে দেখানো হয়েছে ব্রহ্মাণ্ডের সবচেয়ে দূরবর্তী ছায়াপথটিকে। ছবি-সংগৃহীত

ছবিতে চতুর্ভুজের মধ্যে দেখানো হয়েছে ব্রহ্মাণ্ডের সবচেয়ে দূরবর্তী ছায়াপথটিকে। ছবি-সংগৃহীত

ঢাকা: এযাবৎকালের সবচেয়ে দূরবর্তী ছায়াপথটি চিহ্নিত করেছেন নাসার বিজ্ঞানীরা। নতুন ছায়াপথটির নাম রাখা হয়েছে- এসপিডি০৬১৫-জেডি (SPD0615-JD)।

নাসার হাবল ও স্পিটজার টেলিস্কোপের সাহায্যে পাওয়া সবচে দূরবর্তী আদিম এই ছায়াপথটির ছবি ‘গ্র্যাভিটেশনাল লেন্সিং’ নামে একটি বিশেষ প্রযুক্তির মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয়। এ প্রযুক্তির সাহায্যে ছায়াপথের মহাকর্ষীয় ক্ষেত্রের বিচ্ছুরিত আলোকে প্রসারিত করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের স্পেস টেলিস্কোপ সায়েন্স ইন্সটিটিউটের গবেষক ব্রেট স্যামন জানান, গ্র্যাভিটেশনাল লেন্সিং প্রযুক্তির সাহায্যে পাওয়া ছবিটি বিশ্লেষণ করে ছায়াপথটির যথার্থ আকৃতি ও গঠন জানা সম্ভব হয়। এত বেশি দূরত্বে আর কোনো ছায়াপথের সন্ধান এর আগে মানুষ কখনো পায়নি।
গত কয়েক বছরে বেশ কিছু নতুন ছায়াপথ আবিষ্কারের তথ্য জানায় মহাকাশ গবেষণা সংস্থাগুলো। জানা যায়, দূরবর্তী ছায়াপথ খোঁজার জন্য জ্যোতির্বিদরা ‘জুম লেন্স ইফেক্ট’ ব্যবহার করেন। এ পদ্ধতি ছাড়া সর্বাধুনিক এবং সবচেয়ে শক্তিশালী টেলিস্কোপের সাহায্যেও অসীম দূরবর্তী এসব ছায়াপথের সন্ধান পাওয়া সম্ভব হতো না।
হাবল ও স্পিটজার টেলিস্কোপের সাহায্যে পাওয়া ছবির তথ্য বিশ্লেষণ করে গবেষকরা জানাচ্ছেন, ছায়াপথটি সৃষ্টি হয়েছিল প্রায় ১৩ দশমিক ৩ বিলিয়ন বছর আগে। এর ভর প্রায় ৩০০ কোটি সূর্যের সমান। আর এ ছায়াপথের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত ২৫০০ আলোকবর্ষ দূরে।
বাংলাদেশ সময়:১৮৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০১৮
এনএইচটি/জেএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache