ঢাকা, সোমবার, ১০ আষাঢ় ১৪৩১, ২৪ জুন ২০২৪, ১৬ জিলহজ ১৪৪৫

শিল্প-সাহিত্য

‘কালি ও কলম’ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন চার তরুণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৭, ২০২৪
‘কালি ও কলম’ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন চার তরুণ এ বছর ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার’ পেয়েছেন চার তরুণ লেখক | ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: সৃজনশীল চার তরুণ লেখকের হাতে তুলে দেওয়া হলো ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার’। এ বছর পুরস্কার পেলেন কথাসাহিত্য বিভাগে কামরুন্নাহার দিপা; প্রবন্ধ বিভাগে শারফিন শাহ; মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গবেষণা ও সাহিত্যে ফারজানা হক; শিশু-কিশোর সাহিত্য বিভাগে রহমান বর্ণিল।

এ বছর পুরস্কারের জন্য জমা পড়া বইগুলোর মধ্যে গুণগত মানসম্মত কোনো কবিতার বই না পাওয়ায় কবিতায় কাউকে পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়নি।

রোববার (২৭ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রাজধানীর বেঙ্গল শিল্পালয়ে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার ও সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

আয়োজনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কালি ও কলমের সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি ও বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, কালি ও কলমের সম্পাদক সুব্রত বড়ুয়া, প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, কবি মাহবুব সাদিক, বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু, আইএফআইসি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী শাহ আলম সারওয়ার। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী।

কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, আমাদের এটা খেয়াল রাখতে হবে যে, সাহিত্য যেন টেক্সট হয়ে না যায়। লেখকের লেখা পাঠকের জন্য, পুরস্কার বা অন্য কোনো কারণে নয়।

বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, সাহিত্যের পথচলা অনেক অমসৃণ যাত্রা, এই পথে এরকম স্বীকৃতি আগামী দিনে ভালো লেখার প্রণোদনা দেয়। আশা করি, এই সঞ্জীবনী শক্তিতে ওরা এগিয়ে যাবে এবং বাংলাসাহিত্যে নতুন মাত্রা যোগ করে যাবে। পুরষ্কার নয়, লেখালেখি সব সময় পাঠকের জন্য। আপনার লেখা যেন পাঠককে ভাবায়, কিছু অনুভব করায়, সেই উদ্দেশ্যে কাজ করে যাবেন এই আশা রাখছি।

শাহ আলম সারওয়ার বলেন, দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যাংক আইএফআইসি গত চার বছর ধরে এই পুরস্কার প্রদানের সাথে জড়িত। আমরা বিশ্বাস করি যেকোনো দেশের শিল্প ও সংস্কৃতির বিকাশ সেই দেশের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সার্বিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেই বিশ্বাস ও দেশের প্রতি দায়িত্ববোধ থেকেই আইএফআইসি ব্যাংক শিল্প-সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে সব সময় অংশগ্রহণ করে আসছে। আমরা অত্যন্ত গর্বিত এই মহৎ উদ্যোগের অংশীদার হতে পেরে।

পুরস্কার প্রদান শেষে স্বনামখ্যাত রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে এবারের আয়োজন শেষ হয়।

আইএফআইসি ব্যাংক-নিবেদিত ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার ২০২৩’ প্রদান উপলক্ষে এবার ধানমন্ডির বেঙ্গল শিল্পালয়ে দুদিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছিল। প্রথম দিন ২৬ এপ্রিল ছিল দিনব্যাপী গল্প লেখা বিষয়ক কর্মশালা ‘গল্পের কলকব্জা’। এতে গল্প লেখার নানা করণকৌশল সম্পর্কে আলোকপাত করেছেন সাহিত্যে একুশে পদকপ্রাপ্ত লেখক সুব্রত বড়ুয়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম এবং কথাসাহিত্যিক আহমাদ মোস্তফা কামাল, সাদিয়া মাহজাবীন ইমাম ও মোজাফ্ফর হোসেন।

সাহিত্য, শিল্প ও সংস্কৃতি বিষয়ক মাসিক পত্রিকা কালি ও কলম বাংলাদেশের নবীন কবি ও লেখকদের সাহিত্যের সৃজনধারায় গতি সঞ্চারের উদ্দেশ্যে ২০০৮ সাল থেকে ‘কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার’ দিয়ে আসছে। এ পর্যন্ত ৫৮ জন কবি ও লেখক এ পুরস্কার পেয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৭, ২০২৪
এইচএমএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।