ঢাকা, বুধবার, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৭ জিলহজ ১৪৪২

নির্বাচন ও ইসি

বরিশালে চলছে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ

স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০৩ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২১
বরিশালে চলছে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ

ব‌রিশাল: বৃষ্টির মধ্যে বরিশালে শান্তিপূর্ণভাবে শুরু হয়েছে ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোটগ্রহণ।

সোমবার (২১ জুন) সকাল ৮টায় প্রথমধাপে বরিশাল জেলার ৫০টিসহ বিভাগের ১৬৮টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

সকালে বৃষ্টি উপেক্ষা করেই ভোটকেন্দ্রে হাজির হন ভোটাররা। বিশেষ করে সকালে নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল পুরুষদের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি। তবে ভোটকেন্দ্রে আগত ভোটারদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি ছিল কিছুটা উপেক্ষিত।

বরিশাল সদর উপজেলার টুঙ্গিবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সিংহেরকাঠী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে অনেকের মুখেই মাস্ক ছিল না। আবার অনেকেই যথাযথ নিয়মে মাস্ক পরতে দেখা যায়নি।  

এ ইউনিয়নের চেয়ারম্যানপ্রার্থীরা জানান, সকাল ৯টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন চলছে। এরকম চললে প্রার্থীদের কারো কোনো অভিযোগ থাকবে না।  
সিংহেরকাঠী কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. হাসানুর রশীদ মাকসুদ জানান, বৃষ্টির কারণে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথ মানা সম্ভব হয়নি। নির্বাচন যথাযথ নিয়মে হচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।

এদিকে ওই কেন্দ্রের দায়িত্বরত পুলিশের কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামসুল আলম জানান, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কোনো পক্ষ অনিয়মের চেষ্টা করলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান জানান, কোনো স্থান থেকেই এখন পর্যন্ত কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। আমরা কঠোর অবস্থানে রয়েছি।

বরিশাল জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা নুরুল আলম বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে প্রত্যেক ইউনিয়নে রিটার্নিং অফিসাররা ঘুরছেন। এছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ আইন-শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীও টহল দিচ্ছে কেন্দ্রগুলোতে।
বরিশাল জেলার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। সেই অনুযায়ী পুলিশ সদস্যরা কাজ করছেন।

প্রসঙ্গত, বরিশাল জেলার ৫০ ইউনিয়নের মধ্যে ১৪ ইউনিয়নে বিনা  প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচন হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা। এ ১৪ ইউনিয়নে সদস্যপদে ভোটগ্রহণ চলছে। বাকি ৩৬ ইউনিয়নে সব পদে ভোটগ্রহণ চলছে। ৫০ ইউনিয়নে কেন্দ্র রয়েছে ৪৭৪টি। মোট ভোটার ৯ লাখ ২০ হাজার ৪৬৩ জন। এর মধ্যে ৪ লাখ ৬৮ হাজার ১৩৩ জন পুরুষ এবং ৪ লাখ ৫২ হাজার ৩৩০ জন নারী ভোটার। ৫০ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ১৬০ জন, ১৫০ সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রার্থী ৫১৫ এবং ৫৪০টি সাধারণ সদস্য পদে প্রার্থী ১ হাজার ৬২৩ জন।

জেলার ৪৭৪টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৮২টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছেন স্থানীয় প্রশাসন। এছাড়া সদর উপজেলার চরবাড়িয়া, মুলাদীর গাছুয়া, বাবুগঞ্জের জাহাঙ্গীর নগর এবং গৌরনদীর বাটাজোর ইউনিয়নে ইভিএম এর মাধ্যমে চলছে ভোট গ্রহণ।  

নির্বাচনী পরিস্থিতি সুষ্ঠু রাখতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রিট, র‌্যাব, আনসার, পুলিশ এর পাশাপাশি ২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। ছাড়া থাকছে অতিরিক্ত স্টাইকিং ফোর্স।  

বাংলা‌দেশ সময়: ১০০৩ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০২১
এমএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa