bangla news

ধনীরা নয়, শ্রমিক-মধ্যবিত্তরাই ঢাকাকে সচল রেখেছে: রুবেল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৬ ৮:৪৫:৫৮ পিএম
গণসংযোগে সিপিবির মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ডা. আহাম্মদ সাজেদুল হক রুবেল। ছবি: বাংলানিউজ

গণসংযোগে সিপিবির মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ডা. আহাম্মদ সাজেদুল হক রুবেল। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ঢাকা শহর শুধু টাকাওয়ালাদের নয়, এখানে মেহনতি শ্রমিক এবং মধ্যবিত্তের সংখ্যাই বেশি এবং এরাই ঢাকাকে সচল রেখেছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ডা. আহাম্মদ সাজেদুল হক রুবেল।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) বিকেলে উত্তরা এবং দক্ষিণখান এলাকায় গণসংযোগকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ডা. আহাম্মদ সাজেদুল হক রুবেল বলেন, সবার জন্য নিরাপদ ঢাকা, বিভিন্ন সংকট দূর করতে দক্ষ, কর্মসংস্থানবান্ধব, সমতাভিত্তিক ঢাকা গড়ে তুলতে হবে। এ কাজে ঢাকাবাসীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে অফিসকেন্দ্রিক মেয়র কার্যক্রম পরিবর্তন করে ওয়ার্ড ও মহল্লাভিত্তিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। নগর সরকার প্রতিষ্ঠা করাই হবে আমাদের মূল লক্ষ্য।

রুবেল বলেন, ঢাকাকে দূষিত নগরীর তালিকা থেকে মুক্ত করা যেমন দরকার, একইসঙ্গে দূষণকারীদের প্রতিরোধ করাও দরকার। জনগণের জাগরণই পারে দূষণ ও দূষণকারী মুক্ত ঢাকা গড়তে।

শ্রমিক এবং নিম্ন ও মধ্যবিত্তসহ সবার জন্য সমতাভিত্তিক ঢাকা গড়তে তিনি কাস্তে প্রতীকে ভোট দিয়ে গণজাগরণ সৃষ্টির আহ্বান জানান নির্বাচনী প্রচারণাকালে।

এসময় ডা. রুবেলসহ সিপিবি নেতাকর্মীরা দক্ষিণখানের বিভিন্ন পোশাক কারখানার শ্রমিকদের সঙ্গে গণসংযোগ করেন। এছাড়াও তিনি সকাল থেকে মোহাম্মাদপুর, তেজগাঁও, হাতিরঝিল, গুলশান, মিরপুর, কাফরুল এলাকায় কাস্তে প্রতীকের পক্ষে গণসংযোগ করেন।

কাস্তে প্রতীকের প্রচারণায় আরও উপস্থিত ছিলেন সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স, কেন্দ্রীয় সদস্য নারী নেত্রী লুনা নূর, শ্রমিক নেতা রুহুল আমিন, সিপিবি উত্তরা শাখার সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, যুব ইউনিয়ন নেতা শরিফুল আনোয়ার সজ্জন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৬, ২০২০
আরকেআর/এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-16 20:45:58