ঢাকা, রবিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ আগস্ট ২০১৯
bangla news

লক্ষ্মীপুরে ইউপি উপ-নির্বাচনে নৌকা ৩, বিদ্রোহী ১

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-২৬ ৮:৫৮:১৭ এএম
জয়ী তিন চেয়ারম্যান।

জয়ী তিন চেয়ারম্যান।

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুর জেলার চারটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনটিতে আওয়ামী লীগ ও একটিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) দিনগত রাতে বেসরকারিভাবে রিটার্নিং কর্মকর্তারা তাদের বিজয়ী ঘোষণা করেন। লক্ষ্মীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাদেকুর রহমান বাংলানিউজকে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, রামগতি উপজেলার বড়খেরী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হাসান মাকসুদ মিজান ২ হাজার ৮০০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মিরাজ হোসেন আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ২২২ ভোট।

কমলনগরের চর লরেঞ্চ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এএইচএম আহসান উল্লাহ হিরণ ২ হাজার ৮০৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইসমাইল হোসেন মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৪৫৮ ভোট।

উত্তর জয়পুর ইউনিয়নে আনারস প্রতীকে ৩ হাজার ৬৮৩ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বেল্লাল হোসেন পাঠান। তিনি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মিজানুর রহমান পেয়েছেন ১ হাজার ৯২৯ ভোট। এছাড়া রামগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. নাছির খান বিজয়ী হয়েছেন।

গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দুইজন চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ায় এবং দুইজনের মৃত্যুর কারণে ওই চারটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদ শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৫৪ ঘণ্টা, জুলাই ২৬, ২০১৯
এসআর/এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   লক্ষ্মীপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নির্বাচন ও ইসি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-07-26 08:58:17