bangla news

হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরত দেওয়া মানবতাবিরোধী কাজ: তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-০৬ ৫:০৯:১৮ পিএম
রাজধানীর সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

রাজধানীর সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

চট্টগ্রাম: তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, হাসপাতালের দ্বারে দ্বারে ঘুরে রোগীরা অ্যাম্বুলেন্সে মৃত্যুবরণ করছে। যা কোনো ভাবেই কাম্য নয়। হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরত দেওয়া মানবতাবিরোধী কাজ। বিষয়গুলো সরকার পর্যবেক্ষণ করছে। সময়মতো তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শনিবার (৬ জুন) দুপুর ১২টার দিকে টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে আগ্রাবাদের বেসরকারি চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে করোনা চিকিৎসায় ২০ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ড উদ্বোধনকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

এতে টেলিকনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ।

ডাক্তার এবং নার্সদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'ডাক্তার, নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা হলো সম্মুখযোদ্ধা। তাদের যদি পলায়নপর মনোবৃত্তি হয় তা যুদ্ধের ময়দান থেকে পালিয়ে আসার মতো।'

এসময় করোনা মোকাবিলায় সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন বক্তারা। তা ছাড়া সেবা পেতে রোগীদের যাতে ভোগান্তিতে পড়তে না হয় তা খেয়াল রাখার অনুরোধও জানান তারা।

এ বিষয়ে মা ও শিশু হাসপাতাল পরিচালনা পরিষদের ট্রেজারার রেজাউল করিম আজাদ বাংলানিউজকে বলেন, করোনা চিকিৎসার জন্য ১০টি আইসিইউ সুবিধা নিয়ে আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করা হয়েছে। আজ তথ্যমন্ত্রী এ ওয়ার্ডের উদ্বোধন করেন। এ সময় ভূমিমন্ত্রী, শিক্ষা উপ মন্ত্রী, সিটি মেয়র, বিভাগীয় কমিশনার টেলিকনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন। রোববার থেকে রোগী ভর্তি করানো যাবে।

এ সময় হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

করোনা চিকিৎসায় ১০টি ভেন্টিলেটরযুক্ত আইসিইউসহ ২০ শয্যার আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করা হয়েছে হাসপাতালটিতে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২০ ঘণ্টা, জুন ০৬, ২০২০
এমএম/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম করোনা ভাইরাস
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-06 17:09:18