ঢাকা, রবিবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২৭ সফর ১৪৪৪

ক্রিকেট

ক্রিকইনফোর দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২০
ক্রিকইনফোর দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে সাকিব সাকিব আল হাসান/সংগৃহীত ছবি

তিন ফরম্যাটেই গত এক দশকের সেরা একাদশ সাজিয়েছে জনপ্রিয় ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফো। এর মধ্যে দশক সেরা ওয়ানডে একাদশে জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তবে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি একাদশে কোনো বাংলাদেশি ক্রিকেটারের জায়গা হয়নি।

ক্রিকইনফো’র ওয়ানডে একাদশে ৬টি ভিন্ন ভিন্ন দেশের ক্রিকেটাররা জায়গা পেয়েছেন। এই দলের ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে আছেন হাশিম আমলা ও রোহিত শর্মা।

প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান আমলা গত দশকের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ (৪৯.৭৬ গড়ে ৭২৬৫ রান) আর ভারতীয় ব্যাটসম্যান রোহিত (৫২.৯২ গড়ে ৭৯৯১ রান) তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

ওয়ানডে একাদশের হয় তিন নম্বরে বিরাট কোহলির কোনো বিকল্প নেই। গত এক দশকে বিশ্বসেরা এই ব্যাটসম্যানের সংগ্রহ ৬১.৩১ গড়ে ১১ হাজার ৩৬ রান। পরের স্থানটি এবি ডি ভিলিয়ার্সের দখলে। গত এক দশকে তার ব্যাটিং স্ট্রাইক রেট ১০৯.৭৬, গড় ৬৪.২০! ২০১৫ সালে তার ব্যাট থেকে এসেছিল সেই বিখ্যাত ৪৪ বলে ১৪৯ রানের ইনিংস। এই ইনিংস খেলার পথে সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ক গড়েন সবচেয়ে দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড।

জস বাটলারকে হটিয়ে একাদশে জায়গা করে নিয়েছেন রস টেইলর। গত দশকে কিউই ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং গড় ৫৪.০১! দলে অধিনায়ক এবং উইকেটরক্ষক হিসেবে থাকছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। সংক্ষিপ্ত পরিসরের ক্রিকেটের অধিনায়ক হিসেবে তার ক্ষুরধার চিন্তাশক্তি ছাড়াও তার ব্যাটিং গড় (৫০-এর বেশি) এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রেখেছে। তাছাড়া উইকেটরক্ষক হিসেবেও তার সাফল্য অনেক (১৭০ ক্যাচ আর ৭২ স্ট্যাম্পিং)।

ওয়ানডে দলে অলরাউন্ডার হিসেবে জায়গা পেয়েছেন সাকিব আল হাসান। গত এক দশকে তিনি বাংলাদেশকে শুধু রান আর উইকেট এনে দিয়েছেন তাই নয়, তার কন্ট্রোল আর ব্যালেন্স রীতিমত অবিশ্বাস্য। বাংলাদেশকে অসংখ্য স্মরণীয় জয় এনে দিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। গত এক দশকে ওয়ানডেতে সাকিবের সংগ্রহ ৩৮.৮৭ গড়ে ৪২৭৬ রান আর বল হাতে ১৭৭ উইকেট।

ছবি: সংগৃহীতস্পিন বোলিংয়ে সাকিবের সঙ্গী হিসেবে থাকছেন সাবেক প্রোটিয়া লেগ স্পিনার ইমরান তাহির। গত এক দশকে বল হাতে তিনি ১৭৩ উইকেট নিয়েছেন।

ওয়ানডে দলের পেস আক্রমণ বেশ গোছানো। ট্রেন্ট বোল্ট, মিচেল স্টার্ক এবং লাসিথ মালিঙ্গা যদি একই দলে খেলেন, সেই দলের বোলিং নিয়ে মন্তব্য করার কোনো মানে হয় না।  

ক্রিকইনফোর দশক সেরা ওয়ানডে একাদশ:
হাশিম আমলা, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, রস টেইলর, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক এবং উইকেটরক্ষক), সাকিব আল হাসান, ট্রেন্ট বোল্ট, মিচেল স্টার্ক, লাসিথ মালিঙ্গা এবং ইমরান তাহির।

ক্রিকইনফোর দশক সেরা টেস্ট একাদশ:
অ্যালিস্টার কুক, ডেভিড ওয়ার্নার, কেন উইলিয়ামসন, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), স্টিভেন স্মিথ, বেন স্টোকস, এবি ডি ভিলিয়ার্স (উইকেটরক্ষক), রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জেমস অ্যান্ডারসন, ডেল স্টেইন, রঙ্গনা হেরাথ।  

ক্রিকইনফোর দশক সেরা টি-টোয়েন্টি একাদশ:
ক্রিস গেইল, সুনীল নারাইন, বিরাট কোহলি, এবি ডি ভিলিয়ার্স, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), কাইরন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, ডোয়াইন ব্র্যাভো, রশিদ খান, লাসিথ মালিঙ্গা এবং জসপ্রিত বুমরাহ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa