bangla news

কালিদাস কর্মকারের শ্রদ্ধানুষ্ঠান রোববার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ৭:৫৯:১৮ পিএম
বরেণ্য চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার

বরেণ্য চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকার

ঢাকা: বরেণ্য চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকারের শেষ শ্রদ্ধানুষ্ঠান হবে আগামী রোববার (২০ অক্টোবর)। তবে তার শেষকৃত্য কোথায় হবে, সেই বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি।

শিল্পীর পরিবারের পক্ষে গ্যালারি কসমসের আর্টিস্টিক ডিরেক্টর সৌরভ চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমানে কালিদাস কর্মকারের মরদেহ রাজধানীর বারডেম হাসপাতালের হিমাগারে রয়েছে। সেখান থেকে রোববার সকাল ১০টায় তার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে তার শিক্ষাক্ষেত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ প্রাঙ্গণে। 

‘সেখানে শিল্পী, চারুশিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সকাল ১১টায় তার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে। সেখানে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের ব্যবস্থাপনায় তার নাগরিক শ্রদ্ধানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।’

শেষকৃত্যের বিষয়ে তিনি বলেন, তার দুই মেয়ে ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশের পথে রওয়ানা হয়েছেন। তারা দেশে ফিরলে পারিবারিকভাবে শেষকৃত্যের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

আরও পড়ুন>>>বরেণ্য চিত্রশিল্পী কালিদাস কর্মকারের জীবনাবসান

এর আগে শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে তাকে ঢাকার বাসা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ল্যাবএইড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে চিকিৎসকরা কালিদাসকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

ইউরোপীয় আধুনিক ঘরানার শিল্পী কালিদাস কর্মকার তার নিরীক্ষাধর্মী চিত্রকর্মের জন্য শিল্পীমহলে বিশেষ স্থান দখল করে নিয়েছেন।

১৯৪৬ সালে বৃহত্তর ফরিদপুরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। কালিদাসের বাবা হীরালাল কর্মকার ও মা রাধারানী কর্মকার।

শৈশব থেকেই আঁকার প্রতি বিশেষ আগ্রহ ছিল তার। সে আগ্রহ থেকেই তিনি ভর্তি হন তৎকালীন চারুকলা ইনস্টিটিউটে। পরবর্তীতে কলকাতার গভর্নমেন্ট কলেজ অব ফাইন আর্টস অ্যান্ড ক্রাফট থেকে ১৯৬৯ সালে প্রথম বিভাগে প্রথম স্থান নিয়ে চারুকলায় স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন কালিদাস।

দেশে-বিদেশে এ শিল্পীর ৭১টি চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯৭৬ সাল থেকে ফ্রিল্যান্স শিল্পী হিসেবে দেশে-বিদেশে কাজ করে আসছিলেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
ডিএন/এসএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-18 19:59:18