ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কৃষি

‘কৃষিকে লাভজনক করতে বেসরকারি খাতের সহযোগিতা প্রয়োজন’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২, ২০২১
‘কৃষিকে লাভজনক করতে বেসরকারি খাতের সহযোগিতা প্রয়োজন’

ঢাকা: কৃষিকে লাভজনক করতে বেসরকারি খাতের বিনিয়োগ ও সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।  

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কৃষিকে আধুনিক ও বাণিজ্যিকীকরণে কাজ করছে।

কৃষি অচিরেই আধুনিক হবে, যান্ত্রিকীকরণ হবে। কিন্তু কৃষকের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি ও কৃষিপণ্যের ভ্যালু অ্যাডের জন্য বেসরকারি খাতের সহযোগিতা প্রয়োজন। বেসরকারি খাত কৃষিতে বিনিয়োগ করতে চায় না। কৃষিতে সম্ভাবনা অনেক, এখানে বিনিয়োগ দরকার।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ের অফিস কক্ষ থেকে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম অব বাংলাদেশ (আইবিএফবি) আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন: গত পাঁচ দশকে বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়ন’ শীর্ষক ভার্চ্যুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার কৃষিকে লাভজনক করতে গবেষণা ও বিনিয়োগে প্রাইভেট সেক্টরকে উৎসাহিত ও সহযোগিতা দিচ্ছে। এ সরকার ২০০৯ সালে ক্ষমতায় এসেই কৃষি প্রক্রিয়াজাত ও কৃষি পণ্যের রপ্তানি বাড়ানোর জন্য ২০ শতাংশ প্রণোদনার ব্যবস্থা করেছে।

বেসরকারি খাতকে এ সুযোগের পুরোপুরি ব্যবহারের আহ্বান জানান এবং প্রয়োজনে আরো সুবিধা দেওয়ার কথাও জানান কৃষিমন্ত্রী।  

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ‘সোনার বাংলার’ অন্যতম ভিত্তি ছিল কৃষি। বঙ্গবন্ধু দেশের সার্বিক উন্নয়নের জন্য কৃষির ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছিলেন। কৃষি ও কৃষকের উন্নয়নে যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে কৃষি বিপ্লবের সূচনা করেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকারের নানামুখী উদ্যোগের ফলেই কৃষি ক্ষেত্রে ও খাদ্য নিরাপত্তায় বাংলাদেশ আজ অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে।

আইবিএফবির প্রেসিডেন্ট হুমায়ুন রশিদের সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে আইবিএফবির গভর্নমেন্টাল রিলেশন অ্যান্ড অ্যাডভোকেসি কমিটির চেয়ারম্যান লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) এম হারুন-অর-রশিদ বীর প্রতীক, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. লুৎফুল হাসান, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া, আইবিএফবির ভাইস প্রেসিডেন্ট এম এস সিদ্দিকী, এসিআই অ্যাগ্রি বিজনেসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফ এইচ আনসারি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজের উপাচার্য ড. জাহাঙ্গীর আলম।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০২, ২০২১
জিসিজি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa