[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২২ নভেম্বর ২০১৭

bangla news

প্রবাসীদের সহি আমলনামা-৫

সেরাজুল ইসলাম সিরাজ, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০২-১৬ ৯:৪৬:৪২ এএম
মালয়েশিয়ায় বাঙালি প্রবাসীরা

মালয়েশিয়ায় বাঙালি প্রবাসীরা

কুয়ালালামপুর থেকে: জানালাবিহীন রুমের ভাড়া হচ্ছে ৮’শ রিঙ্গিত। এই রুমে থাকেন পাঁচ‍জন। এ রকম তিনটি রুমের জন্য একটি বাথরুম কাম টয়লেট রয়েছে। রুমটিতে খাট কিংবা কোনো ফার্নিচারের বালাই নেই।

মেঝেতে লম্বা কাপড় বিছানো। তার উপর সারি করে পাঁচটি বালিশ পাতা। এখানে গাঁয়ে গাঁ লাগিয়ে ঘুমান তারা। কাপড় বিছানোর পর পায়ের দিকে হাত দুয়েক জায়গা অবশিষ্ট রয়েছে, সেখানে হাড়ি-পাতিল ও বাজার সদাই। এখানেই বিছানায় বসে রান্না-বান্না, সেখানেই বসে খাওয়া দাওয়া। আর যার যার কাপড় ঝুলছে দেয়ালের সঙ্গে রশিতে।

সকাল ৬টায় উঠে লাইন দিতে হয় বাথরুম ব্যবহারের জন্য। কখনও কখনও গোসল ছাড়াই বেরিয়ে পড়তে হয়। তবে এখন কিছুটা মানিয়ে নিয়েছেন সবাই। প্রধান যন্ত্রণা হচ্ছে ছারপোকা। একেক জনের গায়ে হাজারটা করে হুল বসিয়েছে। মানুষগুলো মুখ বুজে সব সহ্য করেন শুধু দেশে থাকা প্রিয়জনদের জন্য।
তারা আশা নিয়ে থাকেন। দু’ পয়সা রোজগার হলে দেশে গিয়ে কিছু একটা করবেন। আবার কেউ কেউ স্বপ্ন দেখেন টাকা জমাতে পারলে এখানেই কোন একটা ব্যবসা শুরু করবেন। কিন্তু শ্রমিক শ্রেণির এই লোকগুলোর বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই হিসেব মিলছে না। রিঙ্গিতের দরপতন হওয়ায় আয় কমে গেছে এক-তৃতীয়াংশ।


দু’পয়সা রোজগারের জন্য মানবেতন জীবন যাপন করা এই সহজ সরল মানুষগুলো প্রায় সকলেই কমবেশি দেশি দালালের দ্বারা প্রতারণার শিকার হয়েছেন। এমন লোকজন খুব কম রয়েছে যার কোনো টাকা মার যায়নি। কারো কারো ক্ষেত্রে অধিকাংশ আয়ই দালালরা মেরে দিয়েছে।
আবার বাড়তি ঝামেলা রয়েছে মালয়েশিয়ান পুলিশ। কারণে অকারণে তাদের হয়রানি করে ছাড়ছে। একবার সামনে পড়লে আর রক্ষা নেই। ভিসা ভূয়া অথবা অন্যকোনো হুমকি দিয়ে নগদ হাতিয়ে নিচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বাংলাদেশ হাই কমিশনের ভূমিকাতেও তারা সন্তুষ্ট হতে পারছে না।

ঘুষ ছাড়া কোনো কাজেই হচ্ছে না তাদের। ভিসা নবায়নে দ্বিগুন-তিনগুন টাকা দিতে হচ্ছে। এমনকি পাসপোর্ট নবায়ন করতেও তিন থেকে চার হাজার টাকা দিতে হচ্ছে বলে দাবি করেছেন তারা।

আবার এমনও লোকের সন্ধ্যান পাওয়া গেছে, যারা পুরোপুরি সাজানো মামলা দিয়ে পুলিশ ডেকে আনছে। আর সেই মামলা আপোষের শর্ত দিয়ে টাকা আদায় করছে। ক্ষেত্র বিশেষে যার নামে মামলা হচ্ছে তিনি কিছুই জানতে পারছেন না কেন তার নামে মামলা।

আগে শুনেছিলাম বিদেশ বিভূঁইয়ে এলে স্বদেশীই নাকি পরম আত্মীয় হয়ে ওঠে। কিন্তু মালয়েশিয়ার প্রেক্ষাপট পুরোপুরি ভিন্ন। এখানে একজন বাংলাদেশি আরেক জনকে বিশ্বাস করছে না। একজন আরেকজনকে বলছে চিটার-বাটপাড়।
কেন চিটার বলছে তারও ব্যাখ্যা রয়েছে তাদের কাছে। ফরিদপুর ভাঙ্গা উপজেলার সুমন নামের এক প্রবাসী থাকেন মালাক্কা সিটিতে। তার অভিজ্ঞতা ভয়াবহ রকম খারাপ। কক্সবাজারের নিজামউদ্দিন নামের এক প্রবাসী মালাক্কা শহরে এলে তার রুমেই জায়গা করে দেন।

যতোদিন কাজ পাচ্ছিলেন না খাওয়া দাওয়া দিয়েছেন তার পকেট থেকে। এরপর কাজও জুটিয়ে দেন তিনি যে হোটেলে কাজ করেনে সেখানেই। সুমন মিয়া গত জানুয়ারি মাসে শেষ দিন ডিউটিতে না গিয়ে ভিসা নবায়নের জন্য কুয়ালালামপুর সিটিতে যান।

ঘুরে দেখেন নিজামউদ্দিন তার কাপড়চোপড় নিয়ে কেঁটে পড়েছে। পরদিন অফিসে দিয়ে যারপর নেই বিস্মিত হন। বসের কাছে গিয়ে শুনতে পান, তার জানুয়ারি মাসের বেতনের টাকা নিজামউদ্দিন তুলে নিয়ে গেছে। পরে ফোন দিলে টাকা ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কিন্তু তারপর পনের দিন পেরিয়ে গেলেও টাকা ফেরত দেন নি। মোবাইল ফোনও বন্ধ করে রেখেছেন নিজামউদ্দিন।

সুমন মিয়া প্রশ্ন করেন, বলেন এখন কিভাবে কাউকে বিশ্বাস করবো। যাকে এতো দিন খাওয়ালাম পরালাম সেই আমার টাকা মেরে দিয়ে ভেগে গেলো। তাই এখন আর কাউকে বিশ্বাস করি না, একাই চলি।

তবে আশাব্যঞ্জক চিত্রও রয়েছে। ময়নুল ইসলাম উজ্জলদের মতো দু’চারজন রয়েছেন যারা স্বদেশিদের জন্য জীবন বাজি রেখে কাজ করে যাচ্ছেন। চেষ্টা করছে কাজ পাইয়ে দেওয়ার। আবার কাউকে আটক করলে নিজের পকেটের পয়সা খরচ করে বের করে আনছেন। তবে এই উজ্জ্বলদের সংখ্যা খুবই নগন্য। হয়তো তাদের খবর অনেকে পাচ্ছেই না।
 
শ্রমিক শ্রেণির প্রবাসীরা বেশির ভাগেই বলেছেন, তারা এখানে খুব একটা ভালো নেই। তবে যারা কারিগরি প্রশিক্ষণ নিয়ে মালয়েশিয়া এসেছেন তারা মোটামুটি ভালো রয়েছেন। তাদের আয় রোজগারও ভালো, আবার কাজের চাহিদা রয়েছে। সে কারণে কেউ নতুন করে মালয়েশিয়া আসতে হলে যে কোনো টেকনিক্যাল প্রশিক্ষণ নিয়ে আসেন। না হলে স্বপ্ন অধরাই থেকে যাবে।

**শুধুই কাজ করে গেলেন, মজুরি পেলেন না...
**মালয়ে সংকল্প, কক্সবাজারে না
**প্রবাসীদের সহি আমলনামা-৩
**প্রবাসীদের সহি আমলনামা-২
** মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের সহি আমলনামা
** বুকিত বিনতানের সম্প্রীতি
** মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের আস্থা ‘লাকম ইনন’
** বাংলানিউজের সিরাজ এখন মালয়েশিয়ায়

 
বাংলাদেশ সময়: ০৯৩৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৭
এসআই/বিএস  

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

প্রবাসে বাংলাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

FROM AROUND THE WEB
Loading...
Alexa