ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের আস্থা ‘লাকম ইনন’

সেরাজুল ইসলাম সিরাজ, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৭
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের আস্থা ‘লাকম ইনন’ হোটেল লাকম ইনন এর একটি রুম/ছবি: বাংলানিউজ

কুয়ালালামপুর থেকে: মুসলিম প্রধান দেশ হলেও মালয়েশিয়াকে বেশ উদারই বলা যায়। এখানের অনেক কিছুই বাংলাদেশে কল্পনাও করা কঠিন। সে কারণে মালয়েশিয়া যাওয়ার আগে একটু ভেবেচিন্তে হোটেল বুকিং দেওয়া উচিত। বিশেষ করে যারা সপরিবারে মালয়েশিয়া যাচ্ছেন তাদের জন্যতো অতি জরুরি।

কারণ হোটেল বাছাইয়ে সচেতন না হলে নারী কিংবা সুরা-সাকি নিয়ে পড়তে পারেন অস্বস্তিকর অবস্থায়। পরিবার নিয়ে এতে সাধের মালয়েশিয়া ভ্রমণের আন্দটাই ফিকে হয়ে যেতে পারে আপনার।

তাহলে কি সপরিবারে মালয়েশিয়া যাওয়া যাবে না? এমনটি কিন্তু নয়। শুধু একটু জেনে শুনে হোটেল বুকিং দিতে হবে। সপরিবারে থাকার মতো অনেক ভালো হোটেল রয়েছে এখানে। সেগুলোতে উঠলে সহজেই মা-বাবা কিংবা সন্তানের সামনে বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়ানো সম্ভব।

যারা এমন হোটেল খুঁজছেন তারা অনায়াসে বুকিং দিতে পারেন ‘লাকম ইনন’ (lacomme inn)। এখানে একদিকে যেমন সুরা-সাকি নিষিদ্ধ, তেমনি পারিবারিক পরিবেশে পাচ্ছেন দারুণ সাশ্রয়ী রেট। হোটেলের ধরণ বলা হচ্ছে বাজেট হোটেল। মানে কম খরচে থাকা ‍যায়। শুধু থাকা নয়, সকালের নাস্তাও দেওয়া হয়।
লাকম ইনন-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ময়নুল হোসেন উজ্জ্বল
আর দশটি হোটেলের মতো অন্য সেবাও পাওয়া যাবে, তবে তার জন্য অতিরিক্ত চার্জ দিতে হবে। অর্থাৎ, আপনি চাইলে ‍রুমে এনে খাবার খেতে পারবেন। সরবরাহ করবে হোটেল কর্তৃপক্ষ। আর না চাইলে দু’কদম হেঁটে পাশেই সব বাঙালি হোটেলের স্বাদ নিতে পারবেন। এখানে রয়েছে হোটেল তাজসহ বেশ কয়েকটি বাঙালি খাবারের দোকান। বিদেশে বসেও আপনি ডাল-ভাত, ভর্তা কিংবা শাক-সবজি দিয়ে উদরপূর্তি করতে পারবেন।

সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, এখানে থাকা মানে সিটির সেন্টার পয়েন্টে থাকা। যদি বলি সিটির হৃদপিণ্ডে আপনি অবস্থান করছেন, তাতেও বেশি বলা হবে না। সিটি অব সিম্বল অর্থাৎ, যা দেখে কুয়ালালামপুর সিটিকে চেনা যায়, সেই টুইন টাওয়ার লাকম ইনন থেকে মাত্র দেড় কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

তাবৎ অভিজাত শপিংমলও এ হোটেলের চারদিক ঘিরে অবস্থিত। কেএল টাওয়ার মাত্র অর্ধ কিলোমিটার, প্যাভিলয়ন সিটি অর্ধ কিলোমিটার, টাইম স্কয়ার দুই কিলোমিটার, সুংগাই ওয়াং প্যালেস অর্ধ কিলোমিটার।
মালয়েশিয়ার সবচেয়ে বড় আইটি মার্কেট (প্লাজা ল ইয়েট) মাত্র এক কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত। এখানে সারা বিশ্বের নামিদামি সব কোম্পানি পসরা সাজিয়ে অপেক্ষা করছে আপনার জন্য।

আবার এখানে থেকে দূরে কোথাও যেতে যান? তাতেও রয়েছে বাড়তি সুবিধা। মালয়েশিয়ান সরকারের ফ্রি বাস সার্ভিস গো কেএল (কোনো চার্জ লাকম ইননদিতে হয় না) রুট ও স্ট্যান্ড মাত্র তিন মিনিটের হাঁটা পথ। আবার র‌্যাপিড বাস সার্ভিস, মনোরেল স্টেশনও একেবারে পায়ের নাগালে।

শতভাগ বাংলাদেশি মালিকানার ‘লাকম ইনন’ বুকিত বিনতাংয়ে একটি ব্যতিক্রমী হোটেল। অনেকটা চ্যালেঞ্জ ও ঝুঁকি নিয়ে পথচলা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু এরই মধ্যে বেশ সুনাম কুড়াতে সক্ষম হয়েছে। লাকম ইনন-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ময়নুল হোসেন উজ্জ্বল বাংলানিউজকে বলেন, আমি এখানে এসেছি পড়ালেখা করার জন্য। এসে অনেককে খুবই বিব্রত হতে দেখেছি। সে কারণে অনেকটা স্রোতের উল্টো দিকে সাঁতার কাটছি।

অনেকে কুয়ালালামপুর দু’দিন থাকার পর মালাক্কা, গেন্টিং কিংবা অন্য কোনো সিটিতে যেতে যান। তখন বিড়ম্বনা দেখা দেয় লাগেজ নিয়ে। সবগুলো লাগেজ টানার কোনো মানে হয় না, আবার রেখে যাবেন কোথায় তেমন কোনো পরিচিত জায়গা নেই। ‘লাকম ইনন’ বিনামূল্যে আপনার এ সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে। এখানে স্টোরে লাগেজ রেখে যেতে পারবেন। ফেরার পর বিনা মাসুলে নিতে পারবেন তুলে।

লাকম ইনন’এ মোট বাইশটি কক্ষ রয়েছে। সিঙ্গেল রুম প্রতি রাতের জন্য ১০৯ রিঙ্গিত, ডাবল ১৩৯ রিঙ্গিত এবং ফ্যামিলি রুম ১৬৯ রিঙ্গিত ভাড়া সব মিলিয়ে। এর উপর রয়েছে নানা রকম ছাড়। বিশেষ করে অনলাইনে (ভাইবার, আইএমও +৬০১০৭৬৬৬৫১৫) বুকিং এবং পেমেন্ট করলে সবসময়েই থাকে বিশ শতাংশ ছাড়। অর্থাৎ, ডাবল এসি রুম মাত্র ১১২ রিঙ্গিতে পাওয়া যায়। একজনের থাকার খরচ পড়ছে ৬১ রিঙ্গিত বাংলাদেশি টাকায় এগারশো টাকার মতো। আবার বাংলাদেশের অ্যাকাউন্ট রয়েছে, সেখানে সরাসরি জমা দিয়ে হোটেল বুকিং নেওয়া হয়।
লাকম ইনন
লাকম ইনন অন্য সেবাও দিয়ে থাকে। যেমন এয়ারপোর্ট থেকে নিয়ে আসা, পৌঁছে দেওয়া, প্লেন, ট্রেন ও বাস টিকেট সংগ্রহ করে দেওয়া প্রভৃতি। রয়েছে প্যাকেজ ট্যুর সার্ভিসও। মালয়েশিয়াসহ থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে রয়েছে তাদের বিশেষ প্যাকেজ। এ বিষয়ে ময়নুল হোসেন উজ্জলের বক্তব্য, সার্ভিসটি আমাদের পুরোপুরি সার্ভিস চার্জমুক্ত। এ খাত থেকে কোনো মুনাফা করা হয় না। সে কারণে অন্য যে কোনো ট্যুর কোম্পানির চেয়ে আমাদের মাধ্যমে গেলে পাবেন সবচেয়ে কম খরচে।

**বাংলানিউজের সিরাজ এখন মালয়েশিয়ায়

বাংলাদেশ সময়: ২২৫০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৭
এসআই/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa