ঢাকা, রবিবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

বিএনপিকে ঘেরাও করে গণপিটুনি নয়, শিক্ষা দেবো: হাছান মাহমুদ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২৩
বিএনপিকে ঘেরাও করে গণপিটুনি নয়, শিক্ষা দেবো: হাছান মাহমুদ তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ: ছবি জি এম মুজিবুর

ঢাকা: বিএনপিকে ঘেরাও করে গণপিটুনি নয় শিক্ষা দেবো বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মিরপুর ১০ নম্বরে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাসান মাহমুদ বলেন, খালি কলসি বেশি বাজে, আর রাস্তায় যখন কুকুরের লড়াই হয়, তখন দেখা যায় যেই কুকুর লেজ গুটিয়ে ফেলে সেই কুকুরের আওয়াজও বেশি। বিএনপির হাক ডাক হচ্ছে খালি কলসি বাজার মতো। আমি বিএনপিকে রাস্তায় যে নেড়ি কুকুর লেজ গুঁটিয়ে ফেলে বেশি আওয়াজ করে তার সঙ্গে তুলনা করতে চাচ্ছি না। বিএনপির আওয়াজ খালি কলসি বাজার মতো।

আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমি আজকে অনলাইন পত্রিকায় দেখলাম, বিএনপি নেতারা বলেছেন, ঢাকা নারায়ণগঞ্জ ঘেরাও করে সরকারের পতন ঘটানো হবে। আমরাও প্রস্তুত আছি আসেন, আপনারা আসেন। আমরা বিএনপিকে এবার ঘেরাও করব। তারা যদি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়, আমরা বিএনপিকে ঘেরাও করবো। আমরা বিএনপিকে ঘেরাও করে, গণপিটুনি দিব না, তবে শিক্ষা দেবো। যদি দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা চালানো হয়, তাহলে তাদেরকে ঘেরাও করা হবে।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, ফখরুল সাহেব নাকি বলেছেন, ভিসা নীতিতে তাদের আন্দোলন বেগবান হয়েছে। ফখরুল সাহেব হয়তো জানেন না, নীতিতে বলা হয়েছে যারা নির্বাচনে বাধা দেবে, তাদের ওপরে এ ভিসা নীতি প্রয়োগ হবে। যাদের ওপরে এরই মধ্যেই ভিসা নীতি কার্যকর করা হয়েছে তাদের মধ্যে বিরোধী দলের নেতারাও আছে। ফখরুল সাহেব হয়তো এটি জানেন না। জানলে তিনি এ কথা বলতেন না।  

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী বলেন, আমাদের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক অত্যন্ত ভালো। আমাদের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক উত্তরোত্তর আরও ভালো হচ্ছে। আপনারা দেখেছেন জো বাইডেন দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সেলফি তুলেছেন এবং নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নৈশ ভোজে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। নিউইয়র্কে জো বাইডেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সস্ত্রীক ছবি তুলেছেন। ছবিই কথা বলে। আমরা ভিসানীতি নিয়ে মাথা ঘামাই না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কারে ভিসা দিল, কারে দিল না এটি তাদের ব্যাপার। এ ভিসানীতি তাদের অনেক আগে থেকেই আছে। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভিসানীতি বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এটি নতুন কোনো কিছু নয়। আমাদের সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সংসদ সদস্য লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) মু. ফারুক খান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার এবং সংসদ সদস্য শাহজাহান খানসহ ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের নেতারা।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শিল্প প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব কামাল আহমেদ মজুমদার।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২৩
আরকেআর/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।