ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

ভারত

কলকাতায় ৪র্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু ২৯ অক্টোবর

ভাস্কর সরদার, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২২
কলকাতায় ৪র্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব শুরু ২৯ অক্টোবর

কলকাতা: একাধিক কর্মসূচি নিয়ে ভারতে আসছেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, এমপি। তার এই সফরকালে কলকাতায় একাধিক অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন তিনি।

আগামী শনিবার (২৯ অক্টোবর) বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং কলকাতাস্থ বাংলাদেশ উপ-হইকমিশনের ব্যবস্থাপনায় কলকাতার রবীন্দ্র সদনে ৪র্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব অনুষ্ঠিত হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, এমপি। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তথ্য প্রযুক্তি এবং পর্যটন দপ্তরের মাননীয় ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়সহ বিশিষ্টজনের। এছাড়া বিনোদন জগতের তারকাদের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন জয়া আহসান, চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম, পরিচালক গৌতম ঘোষসহ অনেকে।  

এবছর কলকাতায় বাংলাদেশের ৩৭টি সিনেমা নিয়ে চতুর্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব সাজানো হয়েছে। এসব ছবি দেখানো হবে কলকাতার ঐতিহাসিক নন্দন ১, ২ ও ৩ নম্বর প্রক্ষাগৃহে। চলচ্চিত্র অনুষ্ঠান শুরু হবে ২৯ অক্টোবর, চলবে ২ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন স্থানীয় সময় দুপুর বারোটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে প্রেক্ষাগৃহগুলো।

প্রথম দিনের চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হবে ‘হাসিনা এ ডটার'স টেল’, ‘হাওয়া’, ‘পরান’ এবং ‘চিরঞ্জীবী মুজিব’। ৩৭টি সিনেমার মধ্যে আটটি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি থাকছে।

এ উপলক্ষে বুধবার (২৬ অক্টোবর) বিকেল ৩টায় কলকাতা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছিল কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাস। উপ হাইকমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস বলেন, দীর্ঘ দু'বছর পর কলকাতায় হতে চলেছে চতুর্থবারের জন্য বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব। বিগত বছরগুলোয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবে কলকাতাবাসীর বিপুল সাড়া পেয়েছিলাম। এবারেও যে এর সাড়া পাব তা এখন থেকেই আঁচ করতে পারছি। ইতিমধ্যেই কলকাতার একাধিক সিনেমা প্রেমী মানুষ যোগাযোগ করছেন। তারা জানতে চাইছেন কবে কি কি ছবি প্রদর্শিত হবে।

যদিও এখনো আমরা ৩১টি ছবি দেখানোর অনুমতি পেয়েছি। আশা করছি বাকি ছয়টা সিনেমার অনুমতি পাব। আমরা যেমন উৎসাহিত তেমনি সচেতন। এই সচেতন থাকার কারণ পুরনো অভিজ্ঞতা অনুযায়ী, এত লোককে শেষ পর্যন্ত জায়গা দিতে পারব কিনা সেটা একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু ইচ্ছে করেই আমরা কোন টিকিটের ব্যবস্থা এখনো পর্যন্ত রাখিনি। আমরা চাই যত সম্ভব চলচ্চিত্রপ্রেমী যেন এসে বাংলাদেশের ছবি দেখতে পারেন। বাংলা সিনেমা উপভোগ করতে পারেন।

উপদূতাবাসের তরফে জানা গেছে, আগামী ২৯ তারিখ মধ্যরাতে কলকাতায় পৌঁছাবেন তথ্যমন্ত্রী। এরপর ওইদিন সকালে ‘ইন্দো বাংলা প্রেস ক্লাব’ এর সংবর্ধনা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত হবেন তিনি। ওই দিন সকালের শুরুতে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ড. হাছান মাহমুদ, সম্মানীয় অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের খাদ্য ও সরবরাহ মন্ত্রী রথীন ঘোষসহ দুই বাংলার বিশিষ্ট জনেরা।

এরপর আরও একটি অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন তথ্যমন্ত্রী। পরে বিকেল সাড়ে চারটায় কলকাতার রবীন্দ্র সদন অডিটোরিয়ামে চতুর্থ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবের শুভ সূচনা করবেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৬, ২০২২
ভিএস/এজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।