ঢাকা, শনিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

ভারত

দীপাবলিতে ভারতে কদর কমেছে চীনা পণ্যের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩১ ঘণ্টা, নভেম্বর ৪, ২০২১
দীপাবলিতে ভারতে কদর কমেছে চীনা পণ্যের

কলকাতা: দীপাবলি হলো আলোর উৎসব। গোটা ভারতে বৃহস্পতিবার (০৪ নভেরম্ব) সন্ধ্যা থেকেই জ্বলে উঠবে প্রদীপ, মোম বা রকমারি লাইট।

তবে বেশিরভাগ বাড়িতেই এলইডি আলো দিয়ে সাজিয়ে তোলার রেওয়াজ রয়েছে। এজন্য বেশ কয়েকবছর ধরে চীনা সামগ্রীর দিকে সবার ঝোঁক ছিল বেশি।

কিন্তু মোদি দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর দীপাবলীর দিনটি চীনা আলোর এবং সামগ্রীর বদলে ভারতীয় প্রযুক্তির এলইডি আলোর চাহিদা বেড়েছে। ফলে শহর কলকাতা জুড়ে চীনা সামগ্রীর বদলে ভারতীয় এলইডির আলোর চাহিদা তুঙ্গে।

প্রায় বছর দুয়েক ধরে ভারতের বাজারগুলোতে চীনের পণ্যবাহী গাড়ি ঢুকছে না। পাশাপাশি দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এলইডি আলো বাজার দখল করেছে। আর তাই শহরজুড়ে ভারতীয় এলইডি লাইট চেন, গাছ, ফানুস কদর বেড়ছে।

শহরের এলইডি লাইটের এক ব্যবসায়ী সোমনাথ মজুমদার বাংলানিউজকে বলেন, চীনা এলইডি লাইটের থেকে ইন্ডিয়ার তৈরি এলইডি আলোর দাম একটু বেশি, তবে গুণগত মান ভালো। একটা চীনা এলইডি ২২ ফুটের লম্বা চেন আগে কলকাতায় বিক্রি হতো ৩৫-৫০ রুপির মধ্যে। কিন্তু ভারতীয় পদ্ধতিতে তৈরি এলইডি ৩২ ফুটের চেইন বিক্রি হচ্ছে ৮০-৮৫ রুপির মধ্যে।

তবে চীনা আলো কেটে গেলে তা ফেলে দিতে হতো, কিন্তু ভারতের তৈরি এলইডি কেটে গেলে সারাই করা যায়। দীপাবলি মানে আলোর উৎসব। এ সময় এ ধরনের আলো দিয়ে সাজিয়ে তোলার রেওয়াজ ভারতে। পাশাপাশি কলকাতার মধ্যবিত্তরা কালীপূজা ও দীপাবলি দিনটিতে এবং বাড়ির ছোটখাটো অনুষ্ঠানে এ ধরনের এলইডি লাইটের চেনগুলো ব্যবহার করে থাকেন। বাকি সময়টা প্যাকেট করে ঘরের এককোনে পড়ে থাকে। সারানো যায়, তাই ভারতীয় এলইডি আলোর চাহিদা বেড়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৪, ২০২১
ভিএস/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa