ঢাকা, সোমবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

কর্মচারী দিয়ে চলছে রমেকের জরুরি বিভাগ!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৪
কর্মচারী দিয়ে চলছে রমেকের জরুরি বিভাগ! ছবি: ফাইল ফটো

রংপুর: চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী (এমএলএসএস) দিয়ে চলছে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ। চিকিৎসক ডিউটিতে এলেও চেম্বারে থাকেন না বলে রোগীর স্বজনদের অভিযোগ।



জরুরি বিভাগে মঙ্গলবার কোনো চিকিৎসকের উপস্থিতি দেখা যায়নি।

এদিকে, হাসপাতাল সূত্র জানায়, রমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা, বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা, রাত ৮টা থেকে রাত ৩টা এবং রাত ৩টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত চারটি শিফটে আটজন চিকিৎসকের দায়িত্ব পালন করার কথা।
 
রোগীর স্বজনের অভিযোগ, চিকিৎসক কখন বসেন, তা কেউ-ই বলতে পারেন না। ফলে, চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীরা রোগী ভর্তির কাজ করেন।

প্রায় তিন মাস ধরে সেখানে এই অবস্থা চলছে বলে হাসপাতালের একাধিক সূত্রে জানা গেছে।

জরুরি বিভাগে না পেয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসদের সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
 
বগুড়ার মালতীনগর এলাকার ফজলু জানান, তিনি প্রোস্টেট ক্যান্সারে আক্রান্ত। গত এক সপ্তাহ ধরে ফিল্ম সংকটে এমআরআই বন্ধ এবং সিটিস্ক্যান মেশিন বিকল হয়ে পড়ে আছে। মঙ্গলবার এমআরআই করতে এসে ফিরে গেছেন তিনি।

বাধ্য হয়ে সরকারি হাসপাতালের চেয়ে দ্বিগুণ ফি দিয়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে এমআরআই করিয়েছেন তিনি।

রোগীদের অভিযোগ, ফজলুর মতো অনেকেই এ অবস্থার শিকার হয়েছেন।

এ বিষয়ে রমেকের উপপরিচালক আবদুল কাদের খান বাংলানিউজকে বলেন, আমার কাছে এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ এলে তদন্ত করা হবে। এমআরআই ও সিটিস্ক্যান হঠাৎ করেই কাজ করছে না। সেগুলো ঠিক করা হচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa