ঢাকা, বুধবার, ১৮ আশ্বিন ১৪৩০, ০৪ অক্টোবর ২০২৩, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

ঠোঁটে শিকার ধরেছে ‘হলদে-চোখ ছাতারে’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ৯, ২০১৭
ঠোঁটে শিকার ধরেছে ‘হলদে-চোখ ছাতারে’ ঠোঁটে শিকার ধরেছে ‘হলদে-চোখ ছাতারে’, ছবি : আবু বকর সিদ্দিক

মৌলভীবাজার: ‘পাখির দেশ-বাংলাদেশ’ হলেও কিছু পাখির সংখ্যা এখনো কম। বাড়ছে না তাদের প্রজনন। প্রাকৃতিক গাছপালা ও লতাগুল্ম ধ্বংস, কৃষিজমিতে ব্যাপক কীটনাশক ব্যবহারে পাখিদের খাদ্য পোকা-মাকড়ের মারাত্মক অভাবসহ পরিবেশগত নানা বিপর্যয়ের কারণগুলো রয়েছে। এটি নিয়ে উদ্বিঘ্ন পাখি গবেষকেরা।

নানামুখি প্রাকৃতিক দূষণের শিকার হয়ে অল্প সংখ্যাক পাখির তালিকায় রয়েছে মাত্র ১৮ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্যের ‘হলদে-চোখ ছাতারে’। এর ইংরেজি নাম Yellow-eyed Babbler এবং বৈজ্ঞানিক নাম Chrysomma sinense

এরা আমাদের দেশের বিরল আবাসিক পাখি।

এ পাখিটি দেখতে প্রায় আমাদের জাতীয় পাখি ‘দোয়েল’ এর মতো। লালচে বাদামি দেহ এবং লম্বা বাদামি লেজ। তবে ‘হলদে-চোখ’ বলা হলেও চোখ কিন্তু হলদে নয়। এই পাখিটিকে চেনার উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হলো এর চোখে রয়েছে কমলা রঙের গোলবৃত্ত বা রিং। ছোট সাদা ভ্রুরেখা কমলাকৃতির ঘিরে রয়েছে চোখটিকে।

বাংলাদেশের প্রখ্যাত পাখি বিশেষজ্ঞ এবং বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ইনাম আল হক বাংলানিউজকে বলেন, ‘হলদে-চোখ ছাতারে পাখিটির খুব কমই দেখা মেলে। শুরু থেকেই এ পাখিটাকে আমরা বাংলাদেশে কম পাচ্ছি। কেন কম পাচ্ছি তার কঠিক কারণ আমাদের জানা নেই। তবে আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে প্রচুর সংখ্যা রয়েছে। ’

এর প্রাপ্তি সম্পর্কে তিনি বলেন, দু-তিন বছর ধরে আমি রংপুরের তেতুলিয়াতে এ প্রজাতির বেশ কিছু পাখি পেয়েছি। শুধু বন নয়, ধানক্ষেতে মধ্যেও সাধারণত বেশি পেয়েছি। জুন-নভেম্বরে প্রজনন মৌসুমে পুরুষ পাখিটিকে উঁচু ঝোপের মাথায় ও লম্বা ঘাসের ডগায় বসে বেশ জোর গলায় গান গাইতে থাকে। ‘টুয়ি-টুয়ি-টুয়ি-টা-হুয়িট-চু’ এভাবে গান গেয়ে মেয়ে পাখিটিকে দৃষ্টি আকর্ষন করে। তবে সিলেট বিভাগেও পাখিটি পাওয়া যায়।

ইনাম আল হক আরো বলেন, ঘাসের গোড়া কিংবা ভূমির খুব কাছে অন্য উদ্ভিদে ঘাস দিয়ে বাটির মতো বাসা তৈরি করে ৩ থেকে ৫টি সাদার রঙের ডিম পাড়ে। পুরুষ-নারী উভয়ে মিলে ১৫-১৬ দিন তা দিয়ে ছানা ফোটায়। শিকারির মন বাসা থেকে অন্য দিকে ফেরাতে কাছের গাছে ডানা ভেঙে নিজের অক্ষমতার ভান করে।

এ ছবিটি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর থেকে সম্প্রতি ৩০ সেপ্টেম্বর তুলেছেন বলে বাংলানিউজকে জানান, পাখি আলোকচিত্রী ও পর্যবেক্ষক আবু বকর সিদ্দিক।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৯, ২০১৭
বিবিবি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa