ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

নোট বাতিলের প্রভাব পড়েছে আমদানি-রফতানিতেও 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০১৬
নোট বাতিলের প্রভাব পড়েছে আমদানি-রফতানিতেও 

১০০০ ও ৫০০ রুপির নোট বাতিল ঘোষণা করার কারণে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সাধারণ মানুষের সমস্যা চলছেই। এখনও ব্যাংকের বিভিন্ন শাখাসহ এটিএম-এও মিলছে না রুপি। 

আগরতলা (ত্রিপুরা): ১০০০ ও ৫০০ রুপির নোট বাতিল ঘোষণা করার কারণে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সাধারণ মানুষের সমস্যা চলছেই। এখনও রাজ্যগুলোর বিভিন্ন ব্যাংকের শাখাসহ এটিএম বুথেও মিলছে না পর্যাপ্ত রুপি।

 

এর পরোক্ষ প্রভাব পড়ছে আমদানি-রফতানিতেও। রোববার (১৩ নভেম্বর) সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেলো।  

আগরতলা এক্সপোর্ট ইমপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক হাবুল বিশ্বাস বলেন, ভারত-বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে আমদানি রফতানি হয় মূলত ডলারে। তাই রুপি বাতিলের জন্য কোনো সমস্যা হচ্ছে না।  

‘আগরতলা ইন্টিগ্রেটেড চেকপোস্টে (আইসিপি) কর্মরত শ্রমিকদের মজুরি দিচ্ছে কর্তৃপক্ষ। এজন্যে ব্যবসায়ীদের ভাবতে হচ্ছে না। ’ 

তবে ব্যবসায়ীদের সমস্যায় পড়তে হচ্ছে বাংলাদেশ থেকে আমদানি করা পণ্য পরিবহনে।  

তার ভাষায়, আইসিপি থেকে ব্যবসায়ীদের পণ্য নিদিষ্ট স্থানে পৌঁছে দিতে হচ্ছে আর এখানেই হচ্ছে সমস্যা। পর্যাপ্ত রুপি না পাওয়ায় ট্রাকের মালিকদের ভাড়া দেওয়া যাচ্ছে না। ফলে আমদানি করা সামগ্রী পড়ে রয়েছে।  

‘এ অবস্থায় নতুন করে বাংলাদেশ থেকে পণ্য আমদানিরও অর্ডার দিতে চাইছেন না ব্যবসায়ীরা। তাই ব্যবসার অনেকটা ক্ষতি হচ্ছে,’ বলে মনে করেন হাবুল বিশ্বাস।
 
কালো টাকার মজুদ রুখতে গত ৮ নভেম্বর রাতে ভারতে ৫০০ ও ১০০০ হাজার রুপির নোট বাতিল ঘোষণা করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
 
যদিও সম্প্রতি ৫০০ ও ২০০০ রুপির নতুন নোট বাজারে ছেড়েছে রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০১৬ 
এসসিএন/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa