ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ শাবান ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

বঙ্গভবনের আদলে প্যাভিলিয়ন হচ্ছে কলকাতার বইমেলায়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০০৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২১, ২০২৩
বঙ্গভবনের আদলে প্যাভিলিয়ন হচ্ছে কলকাতার বইমেলায়

কলকাতা: ভারতের সবচেয়ে বড় বই উৎসব আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা শুরু হচ্ছে আগামী সোমবার (৩০ জানুয়ারি)। এ বইমেলায় বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন হচ্ছে বঙ্গভবনের আদলে।

জানা গেছে, কলকাতা বইমেলায় বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন তৈরি হচ্ছে সাড়ে তিন হাজার বর্গফুট জায়গা জুড়ে। অংশ নিচ্ছে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরসহ ৪৩টি প্রকাশনা সংস্থা।

আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি বইমেলায় পালিত হবে ‘বাংলাদেশ দিবস’। এদিন একটি সেমিনারে অংশ নেবেন দুই বাংলার বিশিষ্ট কবি সাহিত্যিকরা।

এ ছাড়া আয়োজিত হবে বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে সংগীত পরিবেশন করবেন রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাসহ অনেকেই। শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) কলকাতার বাংলাদেশ উপ দূতাবাসের বাণিজ্য শাখার প্রথম সচিব শামসুল আরিফ এ তথ্য দিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় সক্রিয় অংশগ্রহণ করবে বাংলাদেশ। এবং আমরা আশাবাদী প্রতিবারের মতো ৪৬তম কলকাতা বইমেলাতেও বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে পশ্চিমবঙ্গের পাঠকের ঢল নামবে। আমরা লক্ষ্য করেছি পশ্চিমবঙ্গবাসী বাংলাদেশের কবি, সাহিত্যিক, লেখকদের বই পড়তে যথেষ্ট পছন্দ করেন। আমরা আশাবাদী বাংলাদেশি প্রকাশক থেকে পশ্চিমবঙ্গের পাঠক-দুই পক্ষ এবারও কেউ নিরাশ হবেন না। আমাদের প্যাভিলিয়নে পর্যাপ্ত আলো বাতাসের ব্যবস্থা রেখে প্রস্তুত করা হচ্ছে।

২০২২ সালের ৪৫ তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার থিম কান্ট্রি ছিল ‘বাংলাদেশ’। মোট তিনবার কোনো দেশ সেই শিরোপা পেয়েছে। গতবার বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন হয়েছিল ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষণের আদলে। জাতির পিতা ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চে যে ঐতিহাসিক ভাষণ দিয়েছিলেন, সেই ভাষণকেই উপজীব্য করে তৈরি হয়েছিল বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন।

২০২২ সালের বইমেলার প্রধান চারটি প্রবেশ দ্বারের মধ্যে তিনটি দেওয়া হয়েছিল বাংলাদেশকে। এই তিনটি গেট সাজানো হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর বিখ্যাত ৩ বই অসমাপ্ত আত্মজীবনী, কারাগারের রোজনামচা এবং আমার দেখা নয়া চীন’র আদলে।

৪৬তম কলকাতা বইমেলার থিম কান্ট্রি স্পেন। থাকছে নয়টি প্রবেশ দ্বার। তারমধ্যে একটি দ্বার স্পেনের তোলেদো গেটের আদলে হচ্ছে। স্পেন এই নিয়ে দ্বিতীয়বার থিম কান্ট্রির মর্যাদা পেল। এর আগে ২০০৬ সালে বইমেলার থিম কান্ট্রি হিসেবে স্পেন অংশগ্রহণ করেছিল।

৩০ জানুয়ারি শুরু হয়ে মেলা চলবে ১২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। উদ্বোধন করবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্মানীয় অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্পেনের মন্ত্রী মারিয়া খোসে গালবেজ সালভাদর, বিশিষ্ট সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়। কলকাতার বাংলাদেশ হাই কমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস, স্পেন ও বাংলার কবি সাহিত্যিক-গুণীজন।

বাংলাদেশ সময়: ২৪০৩  ঘণ্টা, ২১ জানুয়ারি , ২০২৩
ভিএস/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।