ঢাকা, শনিবার, ৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ আগস্ট ২০২২, ২১ মহররম ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

রাজশাহীতে আগুন ঝরাচ্ছে সূর্য, পুড়ছে মানুষ-প্রকৃতি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৭ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০২২
রাজশাহীতে আগুন ঝরাচ্ছে সূর্য, পুড়ছে মানুষ-প্রকৃতি

রাজশাহী: রাজশাহীতে সকাল থেকেই আগুন ঝরাচ্ছে সূর্য, ঠা ঠা রোদে পুড়ছে পদ্মাপাড়ের এই শহর। সবুজ গাছপালাও যেন তপ্ত নিশ্বাঃস ছাড়ছে।

গরমের তীব্রতায় মানুষসহ পশু-পাখিরাও হাঁসফাঁস করছে। ঘরে-বাইরে কোথাও এতটুকু যেন স্বস্থি নেই। রমজান মাসে প্রকৃতি যেন রুদ্রমূর্তি ধারণ করেছে। অব্যাহত তাপপ্রবাহে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। একটু বৃষ্টি ও শীতল হাওয়ার পরশ পেতে ব্যাকুল হয়ে উঠেছে মানুষ। কিন্তু বৃষ্টির দেখা নেই!

বর্তমানে রাজশাহীর গড় তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ওঠানামা করছে। মার্চের মধ্যভাগ থেকে এপ্রিলের মধ্যভাগ পর্যন্ত একই মাত্রায় তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে রাজশাহীর ওপর দিয়ে। এর মধ্যে গত ৪ এপ্রিল মাত্র ০ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। এর আগে ও পরে দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা বৃষ্টি হলেও খরাপ্রবণ এলাকা রাজশাহীতে তার দেখা নেই।

ফলে বৃষ্টির জন্য চারিদিকে হাহাকার পড়ে গেছে। টানা তাপদাহে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। অসহনীয় রোদ, আর গরমে স্থবিরতা নেমে এসেছে কর্মজীবনেও। বাসা, অফিস কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সবখানেই যেন গরম আর গরম। দিনের বেলায় দূরে থাক, রাতেও গাছের পাতা নড়ছে না।

আসবাবপত্র থেকে শুরু করে সব জিনিসপত্র তেঁতে উঠছে। ঘরের ট্যাপ দিয়ে বের হচ্ছে ফুটন্ত পানি। বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকায় মাথার উপরের ফ্যানটাও দিচ্ছে গরম বাতাস। রাজশাহীর আবহাওয়ার তেমন হেরফের হচ্ছে না। এর মধ্যে রয়েছে বিদ্যুতের ভেলকিবাজি।

তীব্র তাপদাহের কারণে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসাপাতালে বেড়েছে ডায়রিয়াসহ নানা রোগে আক্রান্ত রোগীদের সংখ্যা। বিশেষ করে হাসপাতালের তিনটি শিশু ওয়ার্ডে যেন পা ফেলারও যায়গা নেই। বেডে ফ্লোরে সবখানেই গরমজনিত কারণে রোগী আর রোগী। ফলে রোগীদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে চিকিৎসকদের।

পাশাপাশি উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্তদের দুর্ভোগও বেড়েছে এ তীব্র গরমে। তাই এ সময় বয়বৃদ্ধ ও শিশুদের রোদে না বের হয়ে ঠাণ্ডা পরিবেশের মধ্যে থাকার জন্য বলছেন চিকিৎসকরা।

রাজশাহী আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়া পর্যবেক্ষক রেজওয়ানুল হক বাংলানিউজকে জানান, গত কয়েকদিন ধরে রাজশাহীর তাপমাত্রা বাড়ছেই। বুধবার বেলা ৩টায় রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপামাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৭ দশমিক ০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সাধারণত তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৮ হলে মৃদু তাপপ্রবাহ, ৩৮ থেকে ৪০ হলে মাঝারি তাপপ্রবাহ এবং ৪০ থেকে ৪২ হলে তীব্র তাপপ্রবাহ বলে ধরা হয়। এছাড়া সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে উঠলে তাকে অতিতীব্র তাপপ্রবাহ হিসেবে ধরা হয়। ফলে রাজশাহীর ওপর দিয়ে এখন মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

এর আগে গত ১৯ মার্চ রাজশাহীতে ৩৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি পর্যন্ত তাপমাত্রা উঠেছিল। যা এখন পর্যন্ত চলতি মৌসুমের সর্বোচ্চ বলে উল্লেখ করেন রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের এই কর্মকর্তা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০২২
এসএস/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa