ঢাকা, রবিবার, ৯ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

জ্বালানি তেলের দাম নিয়ে যে ব্যাখ্যা দিলো মন্ত্রণালয়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০২ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০২১
জ্বালানি তেলের দাম নিয়ে যে ব্যাখ্যা দিলো মন্ত্রণালয়

ঢাকা: জ্বালানি তেলের মূল্য সমন্বয় বিষয়ে ব্যাখা দিয়েছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ।

শুক্রবার (৫ নভেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

এতে বলা হয়, বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম ঊর্ধ্বগতির কারণে পার্শ্ববর্তী দেশসহ বিশ্বের অন্য দেশে জ্বালানি তেলের মূল্য নিয়মিত সমন্বয় করছে। কল্যাণকর রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ সবসময় জনগণ ক্রয় ক্ষমতা বিবেচনায় রেখে সাশ্রয়ী মূল্যে জ্বালানি তেল ভোক্তা পর্যায়ে সরবরাহ করতে বদ্ধপরিকর।

সরকার ২০১৩ সালের জানুয়ারিতে দেশে ডিজেলের মূল্য লিটার প্রতি ৬৮.০০ টাকা নির্ধারণ করেছিল। পরবর্তীকালে এপ্রিল ২০১৬ সালে ডিজেল এর মূল্য লিটার প্রতি ৩.০০ টাকা হ্রাস করে ৬৫.০০ টাকায় নির্ধারণ করে। বিগত সাড়ে পাঁচ বছরে দেশে ডিজেল/কেরোসিন এর মূল্য অপরিবর্তিত ছিল এবং ইতোমধ্যে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) ১০ হাজার কোটি টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিয়েছে।

চলতি অর্থ বছরের শুরু থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি পেতে থাকায় সর্বাধিক ব্যবহৃত ডিজেলের ক্ষেত্রে বিপিসি লোকসানের সম্মুখীন হয়। ডিজেলে এ বছরের জুন মাসে লিটার প্রতি ২.৯৭ টাকা, জুলাই মাসে ৩.৭০ টাকা, আগস্ট মাসে ২১ ১.৫৮ টাকা, সেপ্টেম্বর মাসে ২১ ৫.৬২ টাকা এবং অক্টোবর মাসে ১৩.০১ টাকা বিপিসির লোকসান হয়। সে হিসেবে গত সাড়ে পাঁচ মাসে সর্বাধিক ব্যবহৃত ডিজেলের ক্ষেত্রে বিপিসির মোট লোকসানের পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ১১৪৭.৬০ কোটি টাকা। যা সরকার কর্তৃক ভুর্তকি দিয়ে সমন্বয় করতে হবে। তাছাড়া জ্বালানি নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে প্রায় ৩৩ হাজার ৭৩৪ দশমিক ৭৮ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) গ্রহণ করেছে। এ অবস্থায় বিপিসি লোকসানে চলে গেলে এসব উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন বাধাগ্রস্ত হবে যা জ্বালানি নিরাপত্তার জন্য হুমকির সম্মুখীন হতে পারে।

সার্বিক প্রেক্ষাপটে বৃহত্তর জাতীয় স্বার্থে সরকার বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) দেশে ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য পুননির্ধারণ করা হয়েছে, যদিও আশেপাশের অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে ডিজেলের মূল্য এখনও কম।

গত ৩ নভেম্বর ভারতের কোলকাতায় ডিজেলের মূল্য ছিল ১০১.৫৩ রুপি/লিটার বা ১২৪.৩৭ টাকা তেলের ভেজালরোধে কেরোসিনের মূল্য ডিজেলের সমান রাখা হয়। আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য হ্রাস পেলে সরকার পুনরায় ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য সমন্বয়ের উদ্যোগ গ্রহণ করবে।

বাংলাদেশ সময়: ০০৫৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ৫, ২০২১
আরকেআর/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa