ঢাকা, বুধবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৮, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ সফর ১৪৪৩

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

বিদ্যুতের অপচয়রোধী প্রযুক্তির আবিষ্কার করলেন সুমন বৈরাগী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১
বিদ্যুতের অপচয়রোধী প্রযুক্তির আবিষ্কার করলেন সুমন বৈরাগী সুমন বৈরাগীসহ অন্যরা।

ঢাকা: জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরে বাসা বাড়িতে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী একটি মডেল স্বীকৃতি পেয়েছে। খুলনা জেলার তেরখাদা উপজেলার কালিনগর গ্রামের শ্রীপুর মধুসূদন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র সুমন বৈরাগী এ মডেলটি উদ্ভাবন করেন।

বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর থেকে পাঠানো এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিদ্যুতের অপচয়রোধী প্রযুক্তির আবিষ্কারে বিষয়ে এ বৈজ্ঞানিক উদ্ভাবন সম্পর্কে অবগত হয়ে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বিজ্ঞান জাদুঘরে তাকে আমন্ত্রণ জানান। এ উপলক্ষে তার মডেলটি বিজ্ঞান জাদুঘরের সম্মেলন কক্ষে উপস্থাপন করা হয়।  

এতে দেখা যায়, বাসা বাড়িতে মানুষ প্রবেশ করা মাত্রই স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতি জ্বলে উঠবে এবং বাসা ত্যাগ করা মাত্রই এ বাতি নিভে যাবে। এতে বিদ্যুতের সাশ্রয় হবে।  

এ প্রসঙ্গে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলে বহু মেধা ছড়িয়ে আছে। এসব মেধাকে স্বীকৃতি দিতে চায় বিজ্ঞান জাদুঘর। সারাদেশে বিজ্ঞান জাদুঘর বৈজ্ঞানিক উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করে আসছে। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এ প্রযুক্তি বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এদেশে প্রচুর বিদ্যুতের অপচয় হয়, যা প্রযুক্তি দিয়ে রোধ করা সম্ভব। অনুষ্ঠানশেষে উদ্ভাবক সুমন বৈরাগীকে পুরস্কৃত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২১
এমআইএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa