ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

বাজেটে গ্যাসের দাম বাড়ানো হবে: এনবিআর চেয়ারম্যান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৮ ঘণ্টা, মে ১২, ২০১৮
বাজেটে গ্যাসের দাম বাড়ানো হবে: এনবিআর চেয়ারম্যান

ঢাকা: ২০১৮-১৯ অর্থবছরে গ্যাসের দাম বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

শনিবার (১২ মে) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ডিসিসিআই, সমকাল ও চ্যানেল২৪’র যৌথভাবে আয়োজিত প্রাক বাজেট আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, দেশি গ্যাস এবং আমদানি করা এলএনজি মিশ্রন করার পর স্বাভাবিকভাবেই দাম বাড়বে।

দেশের উন্নয়নের জন্য জনগণের ওপর কিছুটা চাপ পড়বে, সেটা মেনে নিতে হবে। তবে সরকার চেষ্টা করছে গ্যাসের দাম যেন সহনীয় পর্যায়ে থাকে। এজন্য এনবিআরের প্রতি নির্দেশনাও আছে। আমরা উচ্চ পর্যায়ের কমিটির সঙ্গে কাজ করছি।

তিনি বলেন, ইনকাম ট্যাক্স ও বিড়ি সিগারেটের বিষয়ে নতুন কিছু করার চেষ্টা করা হবে যাতে রাজস্ববান্ধব ও জনকল্যাণমুখী হয়। বাজেটে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়ানোর পাশাপাশি কৃষি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানী এবং অবকাঠামো খাতের উন্নয়নে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, আগামীতে আমরা সঞ্চয়পত্রকে অটোমেশনে নিয়ে যাবো। যাতে বড় বিনিয়োগকারীরা ভবিষ্যতে এখানে না আসতে পারে। যে রেট অব ইন্টারেস্ট ত‍াতে ক্ষুদ্র সঞ্চয়কারীরা একেবারেই নিরাপদ না। সঞ্চয়পত্রের সুদ কি হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত অর্থমন্ত্রীই নিবেন।

সরকারের আয়ের গুরুত্বপূর্ণ উৎসব অ্যাডভান্স ইনকাম ট্যাক্স। এটি না নিলে অনেক ব্যবসা আমাদের নজরের বাইরে চলে যায় ফাইনাল ইনকাম ট্যাক্স নেওয়ার ক্ষেত্রে। তবে ফেরত দেওয়ার বিষয়ে আমরা গুরুত্ব দিবো। এবছরের জুন মাসের পর থেকে তাদের সমন্বয় বা ফেরত দেওয়া হবে।

মেরিন ফিশারিজের উপর কিছু বরাদ্দ রাখা হবে। ফোর জি মোবাইল অপারেশনে সুবিধা দেওয়া হবে। অন্যান্য চেম্বার ও এসএমইখাত সংশ্লিষ্টরা যেসব বিষয় তুলে ধরেছেন সে বিষয়ের উপর আমাদের নজর থাকবে।

যে কোন আলোচনায় আমরা ট্যাক্স-জিডিপিওর রেশিও বাড়ানোর কথা বলি। আবার একদিকে ট্যাক্স কমানোর কথাও বলি। ট্যাক্স কমানো হলে জিডিপির রেশিও বাড়াতে হবে। সেটিই আমরা চেষ্টা করবো। নীতিমালা বাজেটের পরে করা হলেও ভ্যালু অ্যাডিশনের জন্য এবছরই কিছু সু্বিধা থাকবে।
 
এবারের বাজেটের একটি ছক তৈরি করা হয়েছে। কে কোথায় সুপারিশ করেছে। আমরা কতটুকু রাখতে পারছি। প্রতিবেশী দেশ ও বিশ্বব্যাপী কর্পোরেট ট্যাক্সের যে গঠন পর্যালোচনা করেছি। বিশেষ করে ভারতের তুলনায় আমাদের কর্পোরেট ট্যাক্স বেশি না। তারপরও অর্থমন্ত্রী এটার উপর নজর দিবেন।

অগ্রাধিকার খাতকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সেক্ষেত্রে দু-একটি খাতকে অগ্রাধিকার দেওয়া যাবে না। উন্নয়নশীল কোন একটি খাতকে গুরুত্ব দিলে হবে না। সব খাতকে গুরুত্ব দিতে হবে। এবারের বাজেটে বিনিয়োগকারীদের উৎসাহিত করার দিকে লক্ষ্য রাখা হবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৫০ ঘণ্টা, মে ১২, ২০১৮
এসই/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa