bangla news

গ্যাস রফতানির বিধান বাতিল করে পিএসসি ২০১২-এর খসড়া চূড়ান্ত

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০৮-২৭ ৯:২২:২৪ এএম

বিদেশে গ্যাস রফতানির বিধান বাতিল করে সমুদ্রে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে ‘উৎপাদন বন্টন চুক্তি (পিএসসি) ২০১২’-এর খসড়া চূড়ান্ত করেছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

ঢাকা: বিদেশে গ্যাস রফতানির বিধান বাতিল করে সমুদ্রে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে ‘উৎপাদন বন্টন চুক্তি (পিএসসি) ২০১২’-এর খসড়া চূড়ান্ত করেছে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

।এরই মধ্যে এর একটি সারসংক্ষেপ অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে পাঠানো হয়েছে। এ কমিটির আগামী বৈঠকে এটি উপস্থাপন করা হতে পারে।

প্রণীত খসড়া পিএসসিতে বলা হয়েছে, ‘‘বাংলাদেশ অফশোর বিডিং রাউন্ড-২০১২’-এর জন্য ‘উৎপাদন বন্টন চুক্তি (পিএসসি) ২০১২’-এর একটি মডেল প্রণয়ন করা হয়েছে। বর্তমানে যে ‘উৎপাদন বন্টন চুক্তি’ রয়েছে সেটা ২০০৮ সালের। নতুন খসড়ায় কয়েকটি ক্ষেত্রে সংশোধনী আনা হয়েছে।’’

এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংশোধনীগুলো হচ্ছে: বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির বিবেচনায় উচ্চ সালফারযুক্ত জ্বালানি তেলের ব্যারেল প্রতি সর্বনিম্ন মূল্য ৭০ ডলার থেকে ১০০ ডলার এবং সর্বোচ্চ ১৮০ ডলার থেকে ২০০ ডলার নির্ধারণ (ধারা-১৫.৭.১বি), জটিল ও খণ্ডিত রিজার্ভার বিশিষ্ট কুতুবদিয়া স্ট্রাকচারের উন্নয়ন তুলনামূলকভাবে ব্যয়সাধ্য ও ঝুঁকিপূর্ণ বিধায় বিশেষ এলাকা হিসেবে রিং-ফেন্সড করে বিডিং রাউন্ডে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বিশেষ ধারা সংযোজন (ধারা-১৫এ), বিদেশে গ্যাস রফতানির বিধান অবলোপন (ধারা-১৫.৫.১), বিশ্ববাজারে তেলের অধিক মূল্য বিবেচনায় পেট্রোবাংলাকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কর্তৃক বছর বছর গ্যাস ও কন্ডেন্সেটের মুনাফার ওপর ব্যারেল প্রতি ৩ সেন্টের পরিবর্তে ১০ সেন্ট হারে প্রদান (ধারা-২০.৪), ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মালিকানা পরিবর্তনের বিষয়ে করণীয় সম্পর্কে দিক-নির্দেশনামূলক ধারা সংযোজন (ধারা-৩৩) এবং পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার স্বার্থে একটি ধারা সংযোজন (ধারা-৩৬) ইত্যাদি।

‘‘এসব সংশোধনীর ফলে পিএসসিতে দেশের স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয়টি আরো সুদৃঢ় হবে’’ বলে প্রণীত পিএসসি’র সারসংক্ষেপে দাবি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারের সঙ্গে সমুদ্রসীমা নিয়ে জটিলতা নিরসনের ফলে বঙ্গোপসাগরে সেন্টমার্টিন্স দ্বীপের জন্য পূর্ণ ১২ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত রাষ্ট্রাধীন সমুদ্র, ২০০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত অর্থনৈতিক এলাকা এবং ২০০ নটিক্যাল মাইলের ঊর্ধ্বে মহীসোপান এলাকায় বাংলাদেশের দাবি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এর ফলে বঙ্গোপসাগরের বিস্তীর্ণ এলাকায় বাংলাদেশের জন্য তেল-গ্যাসসহ অন্যান্য খনিজ সম্পদ আহরণের দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। এ প্রেক্ষাপটে ক্রমবর্ধমান জ্বালানির চাহিদা মোকাবিলায় দেশের অগভীর ও গভীর সমুদ্র অঞ্চলে তেল ও গ্যাস অনুসন্ধানে ‘বাংলাদেশ অফশোর বিডিং রাউন্ড ২০১২’ ঘোষণার উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে সরকার।

এ লক্ষ্যেই বিদ্যমান ‘উৎপাদন বন্টন চুক্তি (পিএসসি) ২০০৮’ সংশোধন করে ‘উৎপাদন বন্টন চুক্তি (পিএসসি) ২০১২’-এর খসড়া প্রণয়ন করা হয়েছে।   

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘন্টা, আগস্ট ২৭, ২০১২
এসআর/ সম্পাদনা: অশোকেশ রায়, অ্যাসিসট্যান্ট আউটপুট এডিটর; জুয়েল মাজহার, কনসালট্যান্ট এডিটর jewel_mazhar@yahoo.com 

 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2012-08-27 09:22:24