bangla news

না’গঞ্জে করোনা মোকাবিলায় দলমত নির্বিশেষে সবাই ঐক্যবদ্ধ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৬-০৩ ৯:৫৮:৫৫ পিএম
প্রতীকী

প্রতীকী

নারায়ণগঞ্জ: করোনার শুরু থেকেই নারায়ণগঞ্জে মানুষের পাশে থাকতে দলমত নির্বিশেষে সবাই চেষ্টা করেছেন। কে বিএনপি, কে আওয়ামী লীগ দলমত নির্বিশেষে সবাই সবার সহযোগিতায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় গত ৮ মে থেকে লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষ খাদ্যসঙ্কটে আন্দোলন কিংবা কারও না খেয়ে থাকার অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের পাশে সব দলের রাজনীতিবিদরা পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। বিভিন্ন সংগঠন সংস্থা কিংবা ব্যক্তি উদ্যোগেও মানুষ পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি ছিল প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তাও। এ সময়ে একে অপরের প্রতি দোষারোপ, কাঁদা ছোড়াছুড়ি এবং মাঠের রাজনীতি একেবারেই থমকে গেছে। মানবতার প্রশ্নে সবাই এক হয়ে গেছে। 

করোনার এ দুঃসময়ে দেখা গেছে, নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন মানুষের পাশে ত্রাণ নিয়ে হাজির হতে দেখা গেছে সব দলের নেতাকর্মীদের। এ সময়ে কৃষকের ধান কেটে ঘরে পৌছে দিয়েছে বিএনপি ছাত্রদলের নেতাকর্মীরাও। নারায়ণগঞ্জের ল্যাব স্থাপনের জন্য একই সুরে দাবি জানিয়েছেন সব দলের ও সুধী সমাজের নেতারাও।

স্বাধীনতার আগ থেকেই এ জেলায় রাজনীতির মাঠ খুব সবর থাকতো। সবসময় এক পক্ষ অপর পক্ষের বিরুদ্ধে আঙ্গুল তুলেই রাখতো। এখনও চলে সেই রাজনীতি। মাঠের রাজনীতি উত্তাপ ছড়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, মিডিয়া এবং দেশের কেন্দ্রীয় রাজনীতিতেও। তবে এ সময়ে এসে এক ভিন্ন চিত্র দেখেছে নারায়ণগঞ্জবাসী। মানবতার জয় করতে সব রাজনীতিবিদরা এ সময়ে আগে মানবতা পরে রাজনীতিকে প্রাধান্য দিয়েছেন। এমন রাজনীতি আসলে আমরা সবাই প্রত্যাশা করি।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন জানান, রাজনীতির সময় এখন না আর মানবতা হচ্ছে সব কিছু ঊর্ধ্বে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারাটাই এখন রাজনীতিবিদদের বড় সার্থকতা।

মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল জানান, এখন তো রাজনীতি নয়, মানবতার সময়। তাই আমরা মানুষে সেবা করছি। শহীদ জিয়ার আদর্শের সব সৈনিকরা দেশের সব দুঃসময়ে রাজনীতিকে নয় মানবতাকে প্রাধান্য দিয়ে কাজ করে আসছে এবং আগামীতেও করবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, জুন ০৩, ২০২০
ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-06-03 21:58:55