ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৩ সফর ১৪৪২

রাজনীতি

বুয়েটে রাজনীতির নামে ছিল ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
বুয়েটে রাজনীতির নামে ছিল ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) সব ধরনের সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত ভয়ঙ্কর অগণতান্ত্রিক বলে মন্তব্য করেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট।

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন জোটের সমন্বয়ক আল কাদেরী জয়।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি এটি একটি ভয়ঙ্কর অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্ত এবং সব ধরনের বিরোধী মত ও তার ভিত্তিতে সংগঠিত শক্তিকে দমনের একটি হাতিয়ার।

এটি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একটি প্রতারণাও বটে। কার্যত বুয়েট চলে ’৬১ এর অধ্যাদেশে, সে অনুযায়ী ইতোমধ্যে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ।

আল কাদেরী বলেন, গত এক দশক ধরে বুয়েটে কোনো ছাত্ররাজনীতি ছিল না। শুধু ছিল রাজনীতির নামে ছাত্রলীগের চাঁদাবাজি-সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড আর নির্যাতন। বিরোধী কোনো ছাত্র সংগঠনই ক্যাম্পাসে কাজ করতে গেলে নির্মমভাবে তাদের দমন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র-ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা, বিপ্লবী ছাত্র-মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবীর, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন প্রিন্স প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলন থেকে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধের প্রতিবাদে শনিবার (১২ অক্টোবর) বিকেল ৪টায় টিএসসি থেকে বুয়েট পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল করার ঘোষণা দেওয়া হয়।

আরও পড়ুনফাহাদ হত্যা: ষষ্ঠ দিনেও চলছে বুয়েটে আন্দোলন
বাংলাদেশস সময়: ১২৫৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
এসকেবি/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa