bangla news

সমতা ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধই হবে ভারতের সাথে সম্পর্কের ভিত্তি: খালেদা জিয়া

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১১-০৫-২৫ ১২:২৯:৪৬ পিএম

“বিএনপি সবসময়েই বাংলাদেশের বেসরকারি খাত বিকাশের জন্য নতুন সম্ভাবনা সৃষ্টির চেষ্টা করে”- ওয়াশিংটনভিত্তিক থিংক ট্যাংক আটলান্টিক কাউন্সিলের কার্যালয়ে বক্তৃতাকালে বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।

ওয়াশিংটন: “বিএনপি সবসময়েই বাংলাদেশের বেসরকারি খাত বিকাশের জন্য নতুন সম্ভাবনা সৃষ্টির চেষ্টা করে”- ওয়াশিংটনভিত্তিক থিংক ট্যাংক আটলান্টিক কাউন্সিলের কার্যালয়ে বক্তৃতাকালে বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।

বক্তব্য শেষে এক প্রশ্নের জবাবে বেগম জিয়া বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার সম্পর্কের ভিত্তি হতে হবে সমতা ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ।

বেগম জিয়া তার উন্নয়ন নীতি আলোচনা করতে গিয়ে সরকারি বেসরকারি অংশিদারিত্বের কথা বলেন। তিনি বলেন, বিএনপি বাংলাদেশে গণতন্ত্রের পথিকৃৎ এবং সুশাসন, স্বাধীনতা ও শান্তির প্রতিষ্ঠাতা।

বেগম জিয়া বলেন, সংবাদপত্র ও বিচার বিভাগের স্বাধীনতা বর্তমানে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি অভিযোগ করেন, বর্তমান সরকার প্রশাসন ও বিচার বিভাগকে নিজেদের পক্ষে ব্যবহার করছে।

সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত উইলিয়াম বি. মাইলাম ও হাওয়ার্ড বি শেফার্ড অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

কোন্দলে সংবর্ধনা স্থগিত
ওয়াশিংটনে বেগম খালেদা জিয়ার গণসংবর্ধনা দলীয় কোন্দলে স্থগিত করা হয়েছে। বিএনপির একটি সূত্র জানিয়েছে, ড. জোবাইদা রহমান দূর সম্পর্কের আত্মীয় শরাফত হোসেন বাবুকে কেন্দ্র করে ওয়াশিংটনের গ্রান্ড হায়াটে অনুষ্ঠিতব্য বেগম জিয়ার সংবর্ধনা বাতিল করা হয়।

দায়িত্বশীল সূত্রমতে, বাবু ওয়াশিংটন বিএনপির এক বিতর্কিত ব্যক্তি। পার্টি তাকে মঞ্চে না ওঠার সিদ্ধান্ত না নিলে সেখানে হাতাহাতি ঘটে। বেগম খালেদা জিয়া এ সংবাদ শুনে সংবর্ধনা স্থগিত করার নির্দেশ দেন।

আগামীকাল বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশ ককাশের সাথে বৈঠক করবেন বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৫ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০১১

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2011-05-25 12:29:46