bangla news

হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি!

অফবিট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-৩০ ৩:৩৩:৩৭ পিএম
হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন সরকারি বিক্রেতারা। ছবি: সংগৃহীত

হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন সরকারি বিক্রেতারা। ছবি: সংগৃহীত

পেঁয়াজ নিয়ে পাগলপ্রায় অবস্থা সারাদেশেই। ভারত পেঁয়াজ পাঠানো বন্ধ করে দেওয়ার পর থেকেই লাগামহীন এর দাম। পরিস্থিতি সুবিধার নয় প্রতিবেশী দেশটিরও। সেখানেও দফায় দফায় বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। বাংলাদেশের মতো ভারতেও সরকারিভাবে চলছে পেঁয়াজ বিক্রি। 

বাজারের চেয়ে অর্ধেক দামে পেঁয়াজ কিনতে স্বাভাবিকভাবেই হুড়োহুড়ি পড়ে যায় সবখানেই। পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে দেশটিতে ধাক্কাধাক্কি, মারামারি, এমনকি পাথর নিক্ষেপের ঘটনা পর্যন্ত ঘটেছে। একারণে প্রাণ বাঁচাতে অভিনব এক উপায় বের করেছেন বিহারের সরকারি পেঁয়াজ বিক্রেতারা। মাথায় হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন তারা।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, সারাদেশের মতো বিহারেও পেঁয়াজের দাম চড়া। বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ রুপিতে। পরিস্থিতি সামাল দিতে ৩৫ টাকা কেজি দরে ট্রাকসেলের মাধ্যমে খোলাবাজারে পেঁয়াজ বিক্রি করছে সরকার। 

হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন সরকারি বিক্রেতারা। ছবি: সংগৃহীত

জানা যায়, প্রত্যেককে সর্বোচ্চ দুই কেজি পেঁয়াজ দেওয়া হচ্ছে ৩৫ টাকা কেজিতে। তবে বাড়িতে অনুষ্ঠান থাকলে বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ দেখালে পাওয়া যাবে সর্বোচ্চ ২৫ কেজি।

এভাবে পেঁয়াজ বিক্রি করতে গিয়ে অনেক জায়গাতেই ধাক্কাধাক্কি, মারামারি, পদপিষ্টের ঘটনা ঘটেছে। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখনো পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন না থাকায় শনিবার হেলমেট পরেই পেঁয়াজ বেচতে এসেছেন সরকারি বিক্রেতারা।

বিহার সরকারের কর্মকর্তা রোহিত কুমার জানান, সরকারিভাবে কম দামে পেঁয়াজ বিক্রির সময় পাথর নিক্ষেপ ও পদপিষ্টের ঘটনা ঘটেছে। সরকার কোথাও পুলিশ দেয়নি। তাই হেলমেট পরে নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিজেরাই করেছেন বিক্রেতারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০১৯
একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অফবিট বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-11-30 15:33:37