ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ আগস্ট ২০২২, ১০ মহররম ১৪৪৪

জাতীয়

বাবার বাড়ি যেতে না পেয়ে নববধূর আত্নহত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮ ঘণ্টা, আগস্ট ৫, ২০২২
বাবার বাড়ি যেতে না পেয়ে নববধূর আত্নহত্যা

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলায় বাবার বাড়ি যেতে না পেয়ে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে জিবিকা রানী (২২) নামে এক নববধূ আত্নহত্যা করেছেন।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের চন্দনপাট বামনের বাসা এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত জিবিকা রানী ওই গ্রামের শুধির চন্দ্রের ছেলে দিপু রায়ের স্ত্রী এবং পাশ্ববর্তী কালীগঞ্জ উপজেলার গোড়ল গ্রামের শুকারু চন্দ্রের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পুর্ব পরিচয় থেকে জাবিকা রানীর সঙ্গে দিপু রায়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এক পর্যায়ে তারা গত ছয় মাস আগে বিয়ে করেন। পরে দুইজনের পরিবারই এ সম্পর্ককে মেনে নেন। শুক্রবার সকালে বাবার বাড়ি বেড়াতে যেতে বায়না ধরে জিবিকা রানী। স্বামী দিপু রায় তাতে আপত্তি জানালে তাদের মধ্যে বিতর্ক হয়।

এ ঘটনার জেরেই স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে এদিন দুপুরে নিজ ঘরে ওড়না পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করেন জিবিকা রানী। পরে পরিবারের লোকজন তার ঝুলন্ত মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেন। এরপর পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, স্থানীয়দের খবরে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৭ ঘণ্টা, আগস্ট ০৫, ২০২২
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa