ঢাকা, বুধবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৫ মে ২০২২, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

জৈব জ্বালানির ওপর নির্ভরশীলতা শূন্যে নামাতে যন্ত্র আবিষ্কারের দাবি!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৮ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০২২
জৈব জ্বালানির ওপর নির্ভরশীলতা শূন্যে নামাতে যন্ত্র আবিষ্কারের দাবি! বায়ুমান

আগরতলা, (ত্রিপুরা): যেকোনো যন্ত্র চালাতে ব্যবহার হয় জ্বালানি তেল, কয়লা বা বিদ্যুৎ। এ জ্বালানির ব্যবহারে খরচ হয় বিপুল অর্থ, ক্ষতি হয় পরিবেশের।

জৈব জ্বালানির ওপর এ নির্ভরশীলতা শূন্যে নামিয়ে আনতে সক্ষম এমন একটি যন্ত্র আবিষ্কারের দাবি করেছেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের যুবক রাজকুমার মালাকার (২৮)।

রাজকুমার রাজ্যের ধলাই জেলার অন্তর্গত কমলপুর মহকুমা ছোট সুরমা পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা। জৈব জ্বালানির নির্ভশীলতা শূন্যে নামিয়ে আনতে তিনি যে যন্ত্রটি আবিষ্কারের দাবি করেছেন, সেটি চালাতে নাকি কোনো শক্তির প্রয়োজন হবে না! যন্ত্রটির নাম ‘বায়ুমান’।

ছোট বেলা থেকেই কারিগরি বিষয়ে বেশ জ্ঞান ইতিহাসে বিএ পাশ রাজকুমারের। তিনি জানান, তার আবিষ্কৃত যন্ত্র বায়ুমান চলবে শুধু বাতাসে।

শুধু তাই নয়, রাজকুমারের দাবি তার আবিষ্কৃত যন্ত্রটি একবার চালু করে দিলে চলতে থাকবে অনন্তকাল ধরে। এমনকি সারা পৃথিবী ঘুরে আসা যাবে বায়ুমানের সাহায্যে। তাতেও কোনো শক্তির অপচয় হবে না। এটি নিজের শক্তিতেই চলতে থাকবে।

রাজকুমার বলেন, পৃথিবীকে দূষণমুক্ত করতে পরিবেশবান্ধব যন্ত্র আবিষ্কারের স্বপ্ন তার বহুদিনের। তাছাড়া অনেক ছোট ছোট দেশের জ্বালানি সংগ্রহে তাদের উপার্জনের একটি বড় অংশ ব্যয় হয়। এসব চিন্তা মাথায় রেখে তিনি জৈব জ্বালানি ছাড়াই বায়ুমান আবিষ্কারের পরিকল্পনা করেন।

দীর্ঘ ১৪ বছর ধরে গবেষণার মাধ্যমে বায়ুমান আবিষ্কার করেন রাজকুমার। নাম ছাড়া এর উল্লেখযোগ্য কোনো তথ্য দেননি তিনি। তবে জানিয়েছেন, আবিষ্কারের পর হাজারবারের বেশি সময় নিজের যন্ত্রটি পরীক্ষা করেছেন রাজকুমার। প্রতিটি পরীক্ষায় বায়ুমান সফলতা দেখিয়েছে।

রাজকুমার বলেন, বায়ুমান পেট্রোল বা ডিজেলের ইঞ্জিনের চেয়ে অনেক বেশী শক্তিশালী। বাস-ট্রাক-ট্রেন চালাতে যন্ত্রটি ব্যবহার করা যাবে সহজেই। চাইলে এর সাহায্যে তৈরি করা যাবে বিদ্যুৎ।

রাজকুমার আবিষ্কৃত বায়ুমান আসলে একটি ডেমো ইঞ্জিন। মূল যন্ত্রটি হবে আরও বড়। কিছু গোপন সূত্রের মাধ্যমে যন্ত্রটি তিনি আবিষ্কার করেছেন, খরচ হয়েছে ৭ লাখ টাকা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে নিজের যন্ত্রের পেটেন্ট’র জন্য সাহায্যের আবেদন করেছেন রাজকুমার। যদি পেটেন্টটি পেয়ে যান, তাহলে মূল যন্ত্রটি তৈরি করে সবার সামনে নিয়ে আসবেন। যেহেতু বায়ুমান তৈরি হয়েই গেছে মূল যন্ত্র তৈরিতে একমাসের বেশি সময় লাগবে না বলেও দাবি করেন ত্রিপুরার এ যুবক।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৫ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০২২
এসসিএন/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa