ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ মে ২০২২, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

ট্রেনের ধাক্কায় নিহত: ৪ নারীর মরদেহ হস্তান্তর

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২২
ট্রেনের ধাক্কায় নিহত: ৪ নারীর মরদেহ হস্তান্তর

নীলফামারী: নীলফামারীতে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ইপিজেডের চার নারী শ্রমিকের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  

বুধবার (২৬ জানুযারি) দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে স্বজনদের কাছে এ মরদেহ হস্তান্তর করে রেলওয়ে পুলিশ।

স্বজনেরা সৎকারের জন্য মরদেহ বাড়িতে নিয়ে গেছে।

সৈয়দপুর রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রহমান বিশ্বাস জানান, এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ইজিবাইকটিও উদ্ধার করেছে পুলিশ। সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ইজিবাইকে করে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে নীলফামারী সদরের দারোয়ানী রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় একটি অটোবাইকের চার যাত্রী নিহত হন। এ ঘটনায় ইজিবাইকের চালকসহ আরও পাঁচ শ্রমিক গুরুতর আহত হন। আহতরা নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আহতদের শারীরিক অবস্থা উন্নতি হয়েছে, বর্তমানে তারা শঙ্কামুক্ত।
 
আহতদের শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ডা. নাহিদ হাসান বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমানে ইজিবাইক চালকসহ তিনজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাদের অবস্থা পূর্বের চেয়ে ভালো। বাকিদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
 
ইজিবাইকটি দারোয়ানী রেলস্টেশনের দক্ষিণে আউট সিগন্যাল-সংলগ্ন রেলক্রসিং অতিক্রমের সময় চিলাহাটিগামী আন্তনগর রূপসা এক্সপ্রেস ট্রেনের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে যাত্রীসহ ইজিবাইকটি দুমড়ে-মুচড়ে রেলপথ থেকে প্রায় ৫০ গজ দূরে ছিটকে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলে মারা যান সদরের সোনারায় ইউনিয়নের দারোয়ানী এলাকার ধনীপাড়ার আশরাফ আলীর স্ত্রী শেফালী বেগম (৩৫)।  
স্থানীয়রা এ সময় দ্রুত আহতদের উদ্ধার করে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে একই এলাকার কোরানীপাড়ার বেলাল হোসেনের স্ত্রী ছায়া বানু (২৬) ও ধনীপাড়ার মোশাররফ হোসেন বদির স্ত্রী রুমা আকতার (২৫) এবং রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে ধনীপাড়ার আরমান হোসেনের স্ত্রী মিনারা আক্তার (২২) মারা যান।  

দুর্ঘটনায় আহতরা নীলফামারী জেনারেল হাসপাতাল ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তারা হলেন ইজিবাইকের চালক অহিদুল ইসলাম আপন (২৮), যাত্রী নাজমিন আকতার (৩০), মিনা আকতার (৩০), রওশন আরা (৩৪) ও কুলছুমা আকতার (২৮)। তাদের সবার বাড়ি দারোয়ানী এলাকায়।  

সোনারায় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম শাহ জানান, ঘন কুয়াশার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তাছাড়া এই রেলপথে অরক্ষিত রেলক্রসিং থাকায় এসব যানবাহন নির্বিঘ্নে চলাচল করায় দুর্ঘটনা ঘটছে।

>>> নীলফামারীতে ট্রেনের ধাক্কায় ৪ নারী শ্রমিক নিহত

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২২
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa