bangla news

‘খুচরা বাজারে এলপিজি’র মূল্য অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৮ ৬:৫৮:৫২ পিএম
সংসদে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। ফাইল ফটো

সংসদে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। ফাইল ফটো

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: নতুন মুসক (মূল্য সংযোজন কর) আইন কার্যকর হওয়াতে সরাসরি পর্যায়ে এলপি গ্যাসে (এলপিজি) ভ্যাট খাতে খরচ বৃদ্ধি পেলেও জনস্বার্থ বিবেচনায় খুচরা পর্যায়ে বিক্রয় মূল্য অপরিবর্তিত রেখে মুল্য কাঠামো সংশোধন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে আওয়ামী লীগের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য সৈয়দা রুবিনা আক্তারের এক প্রশ্নে লিখিত উত্তরে তিনি এ কথা জানান। 

এ সময় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। মঙ্গলবারের প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উপস্থাপিত হয়।

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, বর্তমানে সরকারি খাতে উৎপাদিত ১২ দশমিক ৫০ কেজি ওজনের এক সিলিন্ডার গ্যাসের (এলপিজি) ভোক্তা পর্যায়ে খুচরা মুল্য ৭০০ টাকা মাত্র। বেসরকরি খাতে বোতলজাত প্রতিটি ১২ কেজি ওজনের এক সিলিন্ডার গ্যাসের খুচরা পর্যায়ে ৯৫০ টাকা হতে ১০০০ টাকা পর্যন্ত মুল্যে বিক্রির তথ্য পাওয়া গেছে।

পড়ুন>> দেশের বর্তমান মজুদ গ্যাসে ২০৩০ সাল পর্যন্ত চলবে

‘চলতি অর্থবছরে নতুন মুসক আইন কার্যকর হওয়াতে সরাসরি পর্যায়ে এলপিজি ভ্যাট খাতে খরচ বাড়লেও জনস্বার্থ বিবেচনায় খুচরা পর্যায়ে বিক্রয় মূল্য অপরিবর্তিত রেখে মূল্য কাঠামো সংশোধন করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত সরকারিখাতে বিপণনকৃত গ্যাসের মূল্য আন্তর্জাতিক বাজার মূল্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়। তবে বেসরকারি খাতে আমদানি ও বিপণন করা এলপিজির মূল্য আন্তর্জাতিক বাজার মূল্যের সঙ্গে হ্রাস-বৃদ্ধি হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০
এসকে/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সংসদ অধিবেশন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-18 18:58:52