bangla news

তালা খুলে জাফরুল্লাহকে আলোচনায় বসালেন শিক্ষার্থীরা

গণ বিশ্ববিদ্যালয় করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০১-১৪ ৩:১৫:২৮ পিএম
আলোচনা সভায় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ অন্যরা। ছবি:বাংলানিউজ

আলোচনা সভায় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীসহ অন্যরা। ছবি:বাংলানিউজ

গণ বিশ্ববিদ্যালয় (সাভার): গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা এবং গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের (গণবি) ট্রাস্টি বোর্ডের অন্যতম ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে টানা দেড়ঘণ্টা তালা মেরে অবরুদ্ধ রাখার পর সাধারণ শিক্ষার্থীরা আবারও তাকে নিয়ে বৈধ ভিসির দাবিতে আলোচনা সভায় বসিয়েছেন।

এর আগে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে গণবির একাডেমিক ভবনের চারতলার একটি কক্ষে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা সভায় অংশ নিতে এসে এ তোপে মুখে পড়েন তিনি।

গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ পরিষদের আহ্বায়ক রনি আহম্মেদ বলেন, আমরা আপনাকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আটকে রেখেছি। আমরা কী এগুলো করতে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেছি? স্যার, আপনি আগে ঘর বাঁচান।

যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির বৈধতা নেই, বিভাগের অনুমোদন নেই সেই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে একমাত্র ছাত্র সংসদ আছে। এমন ছাত্র সংসদ থেকেই বা কী লাভ বলেন জাফরুল্লাহের দিকে প্রশ্ন ছুড়ে দেন গণবি ছাত্রসংসদের প্রচার সম্পাদক অর্জুন রাজবংশী।

আরও পড়ুন>>>আলোচনা সভায় গিয়ে তালাবদ্ধ জাফরুল্লাহ

বিবিএ বিভাগের শিক্ষার্থীরা জাফরুল্লাহকে উদ্দেশ্য বলেন, আমাদের বিভাগের অনুমোদন নেই একমাত্র আপনার কারণে। আগে কত শিক্ষার্থী ছিলেন আমাদের এখন। কিন্তু এখন নেই।

ফিজিওথেরাপি বিভাগের শিক্ষার্থীরা বলেন, আমাদের বিভাগের যে অনুমোদন নেই তা আমাদের শিক্ষকরা জানিয়েছেন ১০ বছর পরে। আমাদের শিক্ষকরা আমাদের মিথ্যা আশ্বাস দেন। তারা প্রশাসনকে প্রশ্ন করতে ভয় পান। শিক্ষকরা চাকরি করেন। আমরা কারো চাকরি করি না।

শিক্ষার্থীরা বলে চলেছেন আর গণবি ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এবং রেজিস্ট্রার দেলোয়ার হোসেন সেগুলো লিখে নোট নিচ্ছেন।

এর আগে আলোচনা সভা শুরু হলেও শিক্ষার্থীদের সংগঠনগুলো আলোচনা বয়কট করে জাফরুল্লাহকে তালাবদ্ধ করে রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০২০
এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-01-14 15:15:28