ঢাকা, রবিবার, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭, ০৭ মার্চ ২০২১, ২২ রজব ১৪৪২

জাতীয়

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সঠিক হিসাব নেই মন্ত্রীর কাছে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৭ ঘণ্টা, আগস্ট ৩, ২০১৯
ডেঙ্গুতে মৃত্যুর সঠিক হিসাব নেই মন্ত্রীর কাছে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত কতজন মারা গেছেন, তার সঠিক হিসাব নেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপনের কাছে।

শনিবার (৩ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের ওয়ার্ড পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে তিনি সঠিক হিসাব নিয়ে পরে জানাবেন বলে জানান।  

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে এ পর্যন্ত মোট কতজন মারা গেছে, তার সঠিক হিসাব এখন দেওয়া সম্ভব নয়।

খোঁজ-খবর নিয়ে পরে জানানো হবে।

তিনি বলেন, বিশ্বের কয়েকটি দেশের তুলনায় আমাদের দেশে মৃত্যুর সংখ্যা খুবই কম। সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে, সেটা আরেকটু বাড়তে পারে। আমরা শনিবার (৩ আগস্ট) পাঁচ-সাতটি হাসপাতাল পরিদর্শন করবো। এ বিষয়ে সবশেষ যে তথ্য আসবে, তা আপনাদের জানাবো। এ মুহূর্তে আমাদের হাতে সঠিক তথ্য নেই।

জাহিদ মালেক বলেন, ডেঙ্গু পরিস্থিতি এখন মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে। সিটি করপোরেশন ভালোভাবে কাজ করছে। তারপরও এ মুহূর্তে যে অবস্থা, তা মোকাবিলায় আমাদের যথেষ্ট প্রস্তুতি রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি সবাই মিলে মশা কমিয়ে আনার। মশা কমে গেলে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যাও কমে যাবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, কোনো বেসরকারি হাসপাতাল কিট সংকটের অজুহাতে ডেঙ্গু পরীক্ষা না করালে খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এজন্য আমাদের ১০টি টিম কাজ করছে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে প্রয়োজন হলে আরও দুইশ’ বেড বাড়ানো হবে। শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাষ্টিক সার্জারি ইউনিটে এক হাজার বেডসহ আরও দু’টি হাসপাতালে প্রায় দুই হাজার রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যাবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সারাদেশে এখন পর্যন্ত ১৬শ’ থেকে ১৭শ’ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছে। গত তিন-চার দিনে একই হার রয়েছে। রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে না।

তিনি বলেন, আমরা স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারি, মানুষের ঘরে গিয়ে তো মশা মারতে পারছি না। যাদের ঘর, তাদেরও সচেতন হতে হবে। দেশবাসীকে সচেতন হতে হবে। ঘরবাড়ি, আঙ্গিনা পরিস্কার রাখতে হবে। আমি সবার কাছে আহ্বান জানাবো, আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

এসময় বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০৩, ২০১৯ (আপডেট: ১৪২২ ঘণ্টা)
এসই/একে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa