ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

রাজশাহী থেকে সকালের ট্রেনের যাত্রা বাতিল, ৩ বগি উদ্ধার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১১ ৮:৪৬:৩০ এএম
ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ করছে রিলিফ ট্রেন। ছবি: বাংলানিউজ

ঘটনাস্থলে এসে উদ্ধার কাজ করছে রিলিফ ট্রেন। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহী: চারঘাটের হলিদাগাছির দিঘলকান্দি এলাকায় তেলবাহী ট্রেনের আটটি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনায় রাজশাহী থেকে বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকালের সব ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। উদ্ধার কাজ চলছে বুধবার (১০ জুলাই) রাত থেকে। সকাল পর্যন্ত লাইনচ্যুত হওয়া তিনটি বগি উদ্ধার করা হয়েছে। সব মিলিয়ে বৃষ্টি না হলে উদ্ধার কাজ শেষ হতে বিকেল পর্যন্ত সময় লাগবে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। 

জানতে চাইলে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সুপারিন্টেনডেন্ট আবদুল করিম বাংলানিউজকে বলেন, চারঘাটের হলিদাগাছিতে লাইনচ্যুত বগিগুলোর উদ্ধারকাজ শেষ হয়নি। যে কারণে রেললাইনও মেরামত হয়নি। ফলে রাজশাহী থেকে সকালের আন্তঃনগর ট্রেন বনলতা, সাগরদাঁড়ি, সিল্কসিটি, কপোতাক্ষ ও বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেনেরও যাত্রা বাতিল করা হয়েছে। টিকিট ফেরত নিয়ে যাত্রীদের টাকা ফেরত দিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

এর আগে বুধবার রাতের রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর ট্রেন ধূমকেতু এক্সপ্রেসের যাত্রাও বাতিল করা হয়। ইশ্বরদীগামী কমিউটার ট্রেনও ছেড়ে যেতে পারেনি। এছাড়া ঢাকা থেকে রাজশাহী অভিমুখে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর ট্রেন সিল্কসিটি নাটোরের আবদুলপুরে এবং বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেন রাজশাহীর আড়ানিতে আটকা পড়ে আছে। এতে পুরো পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে বলে জানান এই কর্মকর্তা। 

এদিকে, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার শহীদুল ইসলাম জানান, বুধবার রাতে ইশ্বরদী থেকে রিলিফ ট্রেন এলেও বৃষ্টির জন্য উদ্ধারকাজ শুরু করতে বিলম্ব হয়। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত তিনটি বগি উদ্ধার করা হয়েছে। এখন বৃষ্টি না হলে দ্রুতই উদ্ধার কাজ শেষ হবে। তবে এতে বিকেল পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। এরপরও যত দ্রুত সম্ভব উদ্ধার কাজ শেষ করে রাজশাহী-ঢাকা রেলপথ আবার স্বাভাবিক করার জোর চেষ্টা চলছে।উদ্ধারকাজে রেলওয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন স্থানীয়রাও। ছবি: বাংলানিউজবুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে হলিদাগাছির দিঘলকান্দি ঢালানের কাছে তেলবাহী ট্রেনের ৮টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি। তেলবাহী ওই ট্রেনটি খুলনা থেকে রাজশাহীর হরিয়ানের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। ট্রেনটি ঈশ্বরদী হয়ে রাজশাহী অভিমুখে যাচ্ছিল। পথে হলিদাগাছিতে লাইনচ্যুত হয়। 

ট্রেনটির মাঝখান থেকে বগিগুলো লাইনচ্যুত হয়। তাই পরে আটটি বগি রেখে সামনের অন্য বগিগুলো নিয়ে তেলবাহী ওই ট্রেন রাতেই হরিয়ান রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছায়। রাত পৌনে ১০টার দিকে রিলিফ ট্রেন সেখানে পৌঁছায়। তবে বৃষ্টির কারণে উদ্ধারকাজ শুরু করতে বিলম্ব হয়।

এদিকে, ঘটনার পর পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রকৌশল বিভাগের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনা তদন্তে বিভাগীয় ট্রান্সপোর্ট অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুনকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কর্তৃপক্ষ। এই কমিটিকে আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তদন্ত  প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৩৯ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৯
এসএস/এইচএ/

** উদ্ধারকারী ট্রেন পৌঁছলেও বৃষ্টিতে কাজ ব্যাহত

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-11 08:46:30