bangla news

তৃতীয় লিঙ্গের উন্নয়নে সরকার বদ্ধপরিকর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২৭ ৯:৩৬:২২ পিএম
‘রিইনকারনেট-২’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠান/ছবি: বাদল

‘রিইনকারনেট-২’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠান/ছবি: বাদল

ঢাকা: তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর জন্য সমতাভিত্তিক উন্নয়নে সরকার বদ্ধপরিকর বলে মন্তব্য করেছের জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক।

বুধবার (২৭ মার্চ) বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি আয়োজিত দক্ষিণ-এশিয়ান আঞ্চলিক আর্ট ও ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ‘রিইনকারনেট-২’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন তিনি। বিকেলে রাজধানীর বেইলি রোডে মহিলা সমিতির মূল মিলনায়তনে আঞ্চলিক এ উৎসবের উদ্বোধন করা হয়।

কাজী রিয়াজুল হক বলেন, এবারের সংসদ নির্বাচনে দু’জন তৃতীয় লিঙ্গের প্রতিনিধি সংরক্ষিত সংসদ সদস্য পদে আবেদন করেছিল। এর থেকেই প্রমাণিত হয় তাদের উন্নয়নে বর্তমান সরকার দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এনজিও ব্যুরো অ্যাফেয়ার্সের মহাপরিচালক আবদুস সালাম, বাংলাদেশ পুলিশের ডিআইজি হাবিবুর রহমান বিপিএম (বার), ঢাকার কানাডিয়ান হাইকমিশনার বিনোত প্রিফোনটেইন, ঢাকায় সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত রিনি হলেনস্টিন, ঢাকায় নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভারউইজ, নরওয়ে দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত সিটসিল ব্লিকেন, সুইডেনের রাষ্ট্রদূত কারলোটা স্লাইটার, আমেরিকান দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন রিফম্যান জোয়েল আর, অফিস-ইনচার্জ, ইউএনএফপিএ'র অফিস ইনচার্জ মিকো নারিতা প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে দেশকে লৈঙ্গিক বৈচিত্র্যময় ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন এবং অধিকার রক্ষার অঙ্গীকার নিয়ে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ চালিয়ে তাদের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে তা সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া হবে। পিছিয়ে পড়া এই জনগোষ্ঠীর মানুষদের উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি সামাজিক সচেতনতাও সৃষ্টি করতে হবে।

‘রিইনকারনেট-২’ শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ভারত ও বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনা, আঞ্চলিক সাংস্কৃতিক পরিবেশ এবং আগামীর পরিকল্পনা নিয়ে প্যানেল পর্যালোচনা, আলোকচিত্র প্রদর্শনীসহ নানা আয়োজন নিয়ে ২৭ মার্চ থেকে ২৯ মার্চ পর্যন্ত চলবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর সাংস্কৃতিক পর্বে নৃত্য পরিচালক কবিরুল ইসলাম রতনের নির্দেশনায় পরিবেশিত হয় নৃত্যনাট্য- ‘চম্পাবতীর ঘাট’।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩২ ঘণ্টা, মার্চ ২৭, ২০১৯
এইচএমএস/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-27 21:36:22