ঢাকা, সোমবার, ৩ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জুন ২০২৪, ০৯ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

লালমনিরহাটে ঝড়ে নিহত ১, লণ্ডভণ্ড শতাধিক বসতবাড়ি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৪ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০২৪
লালমনিরহাটে ঝড়ে নিহত ১, লণ্ডভণ্ড শতাধিক বসতবাড়ি

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটে কয়েকটি গ্রামের ওপর দিয়ে বয়ে চলা ঝড়ে শতাধিক বসতবাড়ি লণ্ডভণ্ড হয়েছে গেছে। ঝড়ে গাছচাপা পড়ে একজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের উত্তর গোবদা চাত্রারপাড় গ্রামে ঝড়ে গাছচাপা পড়ে সন্তোষ কুমার (৪৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই গ্রামের প্রফুল্য কুমারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে আদিতমারীর বিভিন্ন এলাকায় হঠাৎ বৃষ্টির সঙ্গে প্রবল বেগে ঝড় আসে। এতে বেশ কিছু বাড়িঘর লণ্ডভণ্ড ও গাছপালা উপড়ে পড়েছে। ঝড়ে ঘরের ওপর পড়া গাছ সরাতে গিয়ে চাপা পড়ে উপজেলার উত্তর গোবদা গ্রামের সন্তোষ কুমার গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে বুধবার (২৯ মে) মধ্য রাতে জেলার কালীগঞ্জ ও হাতীবান্ধা উপজেলার কয়েকটি গ্রামের ওপর দিয়ে বৃষ্টির সঙ্গে প্রবল ঝড় হয়। এতে ভেলাগুড়ি, ডাউয়াবাড়ি, মদাতী, ভোটমারী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের শতাধিক বসতবাড়ি ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লণ্ডভণ্ড হয়ে যায়। কালীগঞ্জ উপজেলার মদাতী ইউনিয়নের গাগলারপাড় এলাকার উত্তরপাড়া হযরত আবু বক্কর সিদ্দিক হাফিজিয়া মাদরাসার টিনশেড ঘরে গাছ পড়ে দুমড়ে-মুচড়ে যায়। সেসময় নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে গিয়ে ওই মাদরাসার দুজন শিক্ষক ও একজন শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বুধবার রাত ও বৃহস্পতিবার সকালে পৃথক ঝড়ে জেলার বিভিন্ন এলাকার শতাধিক বসতবাড়ি, গাছপালা ও বিদ্যুতের খুঁটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে বিদ্যুৎহীন অবস্থায় পড়েছে জেলার বেশির ভাগ অঞ্চল। বিদ্যুৎ না থাকায় মোবাইল নেটওয়ার্কেও সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। অনেক এলাকার সড়কে গাছ পড়ে দিনের অর্ধেক সময় যোগাযোগ বন্ধ ছিল। তবে জেলার প্রধান সড়ক লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক সচল ছিল।

দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান নান্নু বলেন, সকালে প্রবল বেগে ঝড় হয়। এতে বেশ কিছু বাড়িতে গাছ পড়ে ক্ষতি হয়েছে। ঘরে ওপড়ে পড়া গাছ সরাতে গিয়ে চাপা পড়ে সন্তোষ কুমার নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

লালমনিরহার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ উল্লাহ জানান, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার, প্রতিষ্ঠানের তালিকা করা হচ্ছে। তালিকা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, মে ৩০, ২০২৪
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।