ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

২০০ পরিবার ঘরছাড়া: নড়াইলের এসপির কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে মানবাধিকার কমিশন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
২০০ পরিবার ঘরছাড়া: নড়াইলের এসপির কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে মানবাধিকার কমিশন

ঢাকা: একটি হত্যাকাণ্ডের জেরে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পিরোলী গ্রামের ’২০০ পরিবার ঘরছাড়া’- এমন সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি নজরে এসেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের। এ বিষয়ে আগামী ১৮ মের মধ্যে জেলার পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে কমিশন।

রোববার (২১ এপ্রিল) বিষয়টি আমলে নেওয়ার কথা জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা ইউশা রহমান।

ইউশা রহমানের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২১ এপ্রিল প্রকাশিত ‘২০০ পরিবার ৯ মাস ঘরছাড়া’ শীর্ষক সংবাদটি জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের নজরে এসেছে। সংবাদে বলা হয়েছে, একটি হত্যাকাণ্ডের জেরে মামলার আসামি করা হয় এলাকার নিরীহ কৃষক ও দিনমজুরদের। আসামি হয়ে হাজত খেটে জামিনে বের হয়ে এলেও হামলার ভয়ে ২০০ পরিবারের সদস্যরা বাড়ি ফিরতে পারছেন না।

২০২৩ সালের ২০ জুলাই গ্রামটিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে খুন হন যুবলীগকর্মী আজাদ শেখ (৩০)। হত্যাকাণ্ডের পর থেকে গত ৯ মাস ধরে ভুক্তভোগীরা ভিটেমাটিছাড়া। ১৫ এপ্রিল পুলিশ সুপারের কাছে বাড়িঘরে ফেরার আকুতি নিয়ে তার কার্যালয়েও যান ভুক্তভোগীরা।

পিরোলী গ্রামে আজাদ শেখ খুনের ঘটনার সঙ্গেসঙ্গেই উদ্ভূত অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় ব্যবস্থা কেন নেওয়া হয়নি- সেই ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য নড়াইলের পুলিশ সুপারকে বলা হয়েছে। ভুক্তভোগীদের নিজ নিজ বাসস্থানে বসবাস করার এবং চাষাবাদ করার উপযুক্ত পরিবেশ নিশ্চিত করে আগামী ১৮ মের মধ্যে কমিশনকে জানাতে পুলিশ সুপারকে বলা হয়েছে। এ সংক্রান্ত আদেশের অনুলিপি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
পিএম/আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।