ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

কামরাঙ্গীরচরে মামার হাতে ভাগনে খুনের অভিযোগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
কামরাঙ্গীরচরে মামার হাতে ভাগনে খুনের অভিযোগ

ঢাকা: রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে ছুরিকাঘাতে তানিম আহমেদ সিফাত (২৩) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।

রোববার (২১ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে কামরাঙ্গীরচর পুরাতন পুলিশ ফাঁড়ির পাশে নিহত সিফাতের নানিরবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নিহতের আপন বড় ভাই তামিম আহমেদও আহত হয়েছেন।

নিহতের স্বজনদের দাবি, মামা রাকিবুল হাসান রাকিবের ছুরিকাঘাতে সিফাত নিহত হয়েছেন।

সিফাত কেরানীগঞ্জ জিনজিরা এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তার বাবার নাম জামিল হোসেন।

নিহতের বাবা জামিল হোসেন বলেন, আমার তিন ছেলে এক মেয়ে। মেজ ছেলে সিফাত ও বড় ছেলে তামিম। দুইজনই ইলেকট্রিকের কাজ করে। রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে সিফাতের নানির বাসার পাশেই তাদের অপর মামা রিপনের ইলেকট্রিক সামগ্রীর দোকান আছে। সেখানেই তারা কাজ করে। যতটুক জানা গেছে, কামরাঙ্গীরচরে বাসার ভেতরেই আরেক মামা রাকিবের ছুরিকাঘাতে সিফাত মারা গেছে। ঘটনার সময় ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে আমার আরেক ছেলে (সিফাতের বড় ভাই) তামিম আহত হয়।

তিনি আরও বলেন, সিফাতের মামা অর্থাৎ আমার শ্যালক রাকিব দীর্ঘদিন ধরে মানসিক সমস্যায় ভুগছিল। তবে আজকে কি কারণে আমার ছেলেকে হত্যা করেছে এখনো জানতে পারিনি।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া জানান, কামরাঙ্গীরচর থেকে দুই ভাইকেই আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে সিফাতকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আর আহত তামিম হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, মামার হাতে ভাগনে খুন হয়েছেন এমন একটি সংবাদ পাওয়া গেছে। তবে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে হত্যাকাণ্ডের আগে সে ভাগনে তার মামাকে মারধর করেছিলেন। বিস্তারিত ঘটনা জানতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
এজেডএস/জেএইচ  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।