ঢাকা, বুধবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

দেশটা আমার, পরিষ্কার রাখার দায়িত্বও আমার, হাজারো উৎস

লাইফস্টাইল ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-০৪ ৪:১২:৩৬ পিএম
রাস্তায় ফেলা ময়লা পরিষ্কার করছেন

রাস্তায় ফেলা ময়লা পরিষ্কার করছেন

রাজধানীর প্রায় সব রাস্তা দিয়ে হাঁটার সময় নিশ্বাস বন্ধ রাখতে হয়, দু’পাশে গাড়ি চলচলের জায়গার অর্ধেকটা ময়লার দখলে। দুঃসহ এই অবস্থার মধ্যেই গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইকোনমিস্ট ইন্টিলেজেন্স ইউনিট (ইআইইউ) একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, বিশ্বের বসবাস অনুপযোগী শহরের তালিকায় ঢাকা তৃতীয়। 

এই প্রতিবেদন প্রকাশ পাওয়ার পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে নিজের শহর নিয়ে হতাশা আর অন্যের ওপর দোষ চাপানোর প্রতিযোগিতা। কিন্তু একবারও কি ভেবেছি এই দায় চাপিয়ে কোনো ভালো কিছু ‍কি কখনো অর্জন হয়েছে? বড়রা যখন উন্নত শহরের সঙ্গে ঢাকার পরিবেশের তুলনা করে সময় পার করছেন, তখন একদল কিশোর বিডি ক্লিনের হয়ে রাস্তায় ফেলা ময়লা পরিষ্কার করে যাচ্ছে চুপিসারে। বাংলানিউজের কথা হলো তাদেরই একজন উৎস’র সঙ্গে।  রাস্তায় ফেলা ময়লা পরিষ্কার করছেন

উৎস জানালো, সবারই মনে রাখা উচিত, দেশকে পরিচ্ছন্ন রাখা আমাদের সবার নাগরিক দায়িত্ব। পরিষ্কার করতে না পারলেও অন্তত যত্রতত্র ময়লা ফেলে পরিচ্ছন্ন স্থানকে নোংরা করা থেকে বিরত থাকতে হবে সবাইকে। 

সবাই যেখানে নোংরা করছে, কয়েক জন কেন পরিষ্কার করছে? উত্তরে উৎস বলেন, আমরা পরিষ্কার করছি, বিশ্বব্যাপী নোংরা দেশের তালিকা থেকে নাম কাটিয়ে, পরিচ্ছন্ন দেশের তালিকায় প্রাণপ্রিয় এই জন্মভূমি, প্রিয় বাংলাদেশের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে।

প্রতিটি মানুষকে রোগ-জীবাণুর আক্রমণ থেকে রক্ষা করে সুস্থভাবে বাঁচতে চার পাশ পরিষ্কার করার প্রতি জোর দেন উৎস। 

সবশেষে উৎসকে তার একটি ছবি দিয়ে আর্টিকেলটি প্রকাশ করার ইচ্ছা জানালে, উৎস বলেন, দেশটা আমাদের সবার। এখানে শুধু আমার ছবি দেয়ার প্রয়োজন নেই, দেশ পরিষ্কার রাখতে যারা কাজ করছেন, সবার প্রতিই ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা। 

ছোট্ট উৎস’র কথাগুলো পড়ার পর আসুন আমরাও সিদ্ধান্ত নিই নিজেদের ময়লাগুলো রাস্তায় ফেলার পরিবর্তে নির্দিষ্ট স্থানে ফেলি। নিজে সচেতন হই, অন্যকে সচেতন করে তুলি।  


বাংলাদেশ সময়: ১৬১৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৪, ২০১৯
এসআইএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-04 16:12:36